ড্রোন উড়িয়ে ভিক্টোরিয়া, ফোর্ট উইলিয়ামের ছবি তোলার অভিযোগে গ্রেফতার চিনা নাগরিক

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের উপর ড্রোন উড়িয়ে ভিক্টোরিয়া ও ফোর্ট উইলিয়ামের ছবি তোলার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন এক চিনা নাগরিক। তাঁকে গ্রেফতার করে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে হেস্টিংস থানার পুলিশ।

রবিবার ছুটির দিন হওয়ায় অন্য দিনের তুলনায় লোক বেশিই ছিল ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে। হঠাৎ করেই তাঁরা দেখেন মেমোরিয়ালের উপর একটি ড্রোন উড়ছে। ময়দানেও সেই সময় বেশ কিছু লোক ছিল। তাঁরাও এই ড্রোন দেখতে পান। কে এই ড্রোন ওড়াচ্ছে, সেটা খোঁজ করতে করতে হঠাৎ কয়েকজনের নজরে আসে ময়দানের এক প্রান্তে হাতে রিমোট নিয়ে দাঁড়িয়ে এক যুবক। উপস্থিত লোকেরা বুঝতে পারেন, ওই যুবকই ড্রোনটা ওড়াচ্ছেন।

সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা ধাওয়া করেন ওই যুবককে। লোকদের আসতে দেখে ওই যুবক পালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু পালাতে পারেননি। যুবককে ধরে পুলিশে খবর দেন উপস্থিত জনতা। সঙ্গে সঙ্গে সেখানে আসে হেস্টিংস থানার পুলিশ। পুলিশের কথায় ওই যুবক ড্রোন নামাতে বাধ্য হন। পুলিশ সূত্রে খবর, জেরার মুখে তিনি জানিয়েছেন, তিনি চিনের নাগরিক। শনিবারই মালয়েশিয়া হয়ে কলকাতায় পা রেখেছেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ড্রোন পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে তাতে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের বিভিন্ন অংশের ছবি রয়েছে। এমনকী পাশের ফোর্ট উইলিয়ামেরও ছবি তোলা হয়েছে তাতে। ফোর্ট উইলিয়ামে সেনা থাকায় সেখানে ঢোকার বা ভেতরের ছবি তোলার অধিকার নেই সাধারণ মানুষের। তাই ফোর্ট উইলিয়ামের ছবি তুলে আইন ভেঙেছেন তিনি। এই অভিযোগেই গ্রেফতার করা হয়েছে ও চিনা যুবককে।

যদিও পুলিশ জানিয়েছে, জেরার মুখে ওই যুবক জানিয়েছেন তিনি নিছকই পর্যটক হিসেবে ছবি তুলছিলেন। কিন্তু ড্রোন ব্যবহার করে ফোর্ট উইলিয়াম বা ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের মতো গুরুত্বপূর্ণ জায়গার ছবি তোলার দরকার কেন পড়ল, তার কোনও সঠিক জবাব ওই যুবক দিতে পারেননি। কোনও অসত উদ্দেশ্যে তিনি এসেছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ২৫ মার্চ পর্যন্ত ওই যুবককে নিজেদের হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে হেস্টিংস থানার পুলিশকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.