চিটফান্ড কাণ্ডে তদন্তের জন্য কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার আবেদন জানাল সিবিআই। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার পক্ষে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা আদালতে জানান, হেফাজতে নিয়ে রাজীবকে তাঁরা জেরা করতে চান। তাঁর বিরুদ্ধে প্রমাণ লোপাট এবং জেরায় অসহযোগিতার অভিযোগ তোলেন সলিসিটর জেনারেল। আদালত এই দাবির স্বপক্ষে প্রমাণ দাখিলের নির্দেশ দেয়। সিবিআই-এর তরফে বলা হয় বুধবার সমস্ত প্রমাণ তাঁরা দেবেন। বিচারপতি জানিয়েছেন, কাল, বুধবার সিবিআই সেই প্রমাণ দিলে ফের শুনানি হবে এই মামলার।

এ দিনের শুনানিতে সিবিআই-এর তরফে সলিসিটর জেনারেল আদালতে জানান, জেরায় দেবযানী মুখোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, সারদা সংস্থায় একটা ক্যাশবুকে হিসাব রাখা হত। তা ছাড়া একটা ডায়েরিও ছিল। কাকে কত টাকা দেওয়া হয়েছে তা সেটিতে লেখা ছিল। হয় সেই ক্যাশবুক বা ডায়েরি এসআইটি বাজেয়াপ্ত করেনি। বা সেটি বাজেয়াপ্ত করলেও সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেয়নি।

বিচারপতিরা এ দিন জানতে চান, বিধাননগরের প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষ কি কখনও বলেছেন যে রাজীব কুমারের নির্দেশেই তিনি যাবতীয় পদক্ষেপ করেছিলেন। অথবা কোনও তদন্তকারী অফিসার কি সে রকম কোনও জবানবন্দি দিয়েছেন। যা থেকে প্রমাণ করা যায় যে তথ্য প্রমাণ লোপাটের নেপথ্যে রাজীব কুমারের ডায়রেক্ট লিঙ্ক ছিল।

এ দিন শুনানির সময় প্রধান বিচারপতি বারবার বলেন, রাজীব কুমারকে হেফাজতে নেওয়ার অনুমতি আদালত দিতেই পারে। এটা কোনও বড় ব্যাপার নয়। কিন্তু রাজীবের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে আদালতকে সন্তুষ্ট করতে হবে সিবিআইকে। তুষার মেহতা তখন বলেন, আজই এ ব্যাপারে সমস্ত তথ্য প্রমাণ আনার ব্যবস্থা করছি। কাল বুধবার আদালতে পেশ করা হবে।

আইনজীবীরা মনে করছেন, কাল তথ্য প্রমাণ নিয়ে ফের এক প্রস্ত সওয়াল করবে সিবিআই। তার পর বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকার তথা রাজীব কুমারের আইনজীবীদের সওয়াল করার কথা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.