বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক দৌড় প্রতিযোগিতায় তিনটে সোনার মেডেল জিতলেন পুরুলিয়ার সন্দীপ

আন্তর্জাতিক দৌড় প্রতিযোগিতায় সোনা জিতলেন বাংলার ছেলে। ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক দৌড় প্রতিযোগিতায় তিনটি সোনার মেডেল জিতে চমকে দিলেন পুরুলিয়ার প্রত্যন্ত বেগুনকোদর গ্রামের সন্দীপ দাস। সোনাজয়ী সন্দীপ বাড়ি ফিরতেই তাঁকে নিয়ে মেতে উঠলেন গ্রামবাসীরা।

গত ৮ ও ৯ মার্চ ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ৩ কিলোমিটার, ৫ কিলোমিটার ও ১৫০০ মিটারের দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রথম আসন ছিনিয়ে নেন সন্দীপ। পুরুলিয়ার জঙ্গলমহলের সিভিক ভলান্টিয়ার সন্দীপের খেলাধূলার প্রতি আগ্রহ ছোটবেলা থেকেই। অভাবের সংসার। জয়ের আনন্দ যেমন আছে, তেমনি একবুক অভিমান রয়েছে সন্দীপের। বলেছেন, “অনেক আগেই দেশের নাম উজ্জ্বল করতে পারতাম, যদি স্পেনের মাস্টার অ্য়াথলেটিক্স অলিম্পিকে যেতে পারতাম। কিন্তু পাসপোর্ট না হওয়ায় যেতে পারিনি। ”

আনন্দের দিনে লাভ ক্ষতির অঙ্কটা আর কষতে চাননা সন্দীপ। তাঁর মন প্রাণ জুড়ে এখন শুধু জয়ের আনন্দ। গর্বিত সন্দীপের কথায়, “ভালো প্রশিক্ষক পাইনি, কিন্তু আমি আনন্দিত দেশকে তিনটি সোনার মেডেল এনে দিতে পেরেছি। ” তবে জয়ের কৃতিত্বটা শুধু একার কাঁধে নিতে চাননি সন্দীপ। জানিয়েছেন, তাঁর বন্ধুরা ও ক্লাবের সদস্য়দের অনেক অবদান রয়েছে তাঁর এগিয়ে যাওয়ার রাস্তায়।

বেগুনকোদর গ্রামে আজ খুশির মুহূর্ত। সন্দীপ গ্রামে পা দিতেই শুরু হয়ে গেছে তুমুল নাচানাচি। সন্দীপকে ছোটোবেলা থেকে চেনেন রাধেশ্যাম অধিকারী। বলেছেন, “আজ আমরা খুব খুশি। গ্রামের একটা ছোট্ট ছেলে, একটা নয় তিনটে সোনার মেডেল জিতে বাড়ি ফিরেছে। আজ থেকে গ্রামের নামটা গর্বের সঙ্গে নিতে পারবো শুধুমাত্র সন্দীপের জন্য।“

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.