ওয়ার্নারকে কি আর IPL-এ আর দেখতে পাওয়া যাবে না? অজি ক্রিকেটারের টুইট ঘিরে জল্পনা

 অস্ট্রেলিয়ার ওপেনিং ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এবং তাঁর আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলের সম্পর্কটা যে একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছে, তার প্রমান দীর্ঘ দিন ধরেই সামনে চলে আসছিল। বিতর্কের আগুন এই মরসুমের শুরু থেকেই ধিকিধিকি করে জ্বলছিল। তাতে ঘৃতাহুতি হয় আইপিএলের প্রথম পর্বে ওয়ার্নারকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানোর মধ্যে দিয়ে। আর দ্বিতীয় পর্বে তাঁর খারাপ ফর্মের জন্য দল থেকে বাদ পড়ার পরে এমনিতেই জল্পনা শুরু হয়েছিল। আর রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে হায়দরাবাদ ম্যাচের পড়ে সেই জল্পনাতেই কার্যত শিলমোহর দিয়ে ফেললেন ডেভিড ওয়ার্নার।

সোশ্যাল মিডিয়াতে এক ভক্ত রাজস্থান ম্যাচ চলাকালীন হায়দরাবাদ দলের বেঞ্চে বা বাউন্ডারি লাইনের পাশেও ওয়ার্নারের অনুপস্থিতির কথা তুলে ধরেন। তার প্রেক্ষিতে অপর এক ভক্ত ওয়ার্নারকে উদ্দেশ্য করে লেখেন, ‘আমি কাঁদছি। তুমি বিশ্রাম নাও এবং তোমার পাওয়ার প্যাক ভঙ্গিমায় কামব্যাক কর।’ যার উত্তরে ওয়ার্নার পাল্টা টুইটে লেখেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত হয়তো আর কখনও নয়, কিন্তু দলকে সমর্থন করা থেকে বিরত থেকো না।’ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

ওয়ার্নারের এই টুইট রীতিমতো আলোড়ন ফেলে দেয়। ম্যাচ চলাকালীন ধারাভাষ্যকারদের এই টুইট নিয়ে আলোচনা করতে দেখা যায়। মাঠে ওয়ার্নারের অনুপস্থিতিতে সম্বন্ধে বলতে গিয়ে হায়দরাবাদ কোচ ট্রেভর বেইলিস আজব তথ্য খাড়া করেন। তাঁর মতে, নবীন প্রতিভাদের মাঠে বসে অভিজ্ঞতা সঞ্চয়ের সুযোগ করে দিতেই নাকি দলের সঙ্গে আসেননি ওয়ার্নার। 

উল্লেখ্য এই ওয়ার্নারের অধিনায়কত্বে ভর করে ২০১৬ সালে আইপিএলের শিরোপা জিতেছিল হায়দরাবাদ দল। উল্লেখ্য ব্যাট হাতেও হায়দরাবাদের হয়ে ওয়ার্নারের পারফরম্যান্স উজ্জ্বল। ২০১৪-২০ টানা ৭ মরসুমে তিনি ব্যাট হাতে গড়ে সব মরসুমেই ৫০০ এর উপর রান করেছেন। ২০১৭ এবং ২০১৯ সালে তিনি ৬০০ এর উপর দলের হয়ে রান করেছিলেন। তার পরেও ওয়ার্নারের এইভাবে প্রস্থান অরেঞ্জ আর্মির ভক্তদের কাছে একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.