দ্বিতীয় পর্বের পর

২০২০-র মাঝামাঝি একটি হিন্দু সংগঠনের মহিলা শাখার সভানেত্রীর দায়িত্ব নিয়েই বেশ কয়েকটি চিঠি লিখি বিভিন্ন দপ্তরে। তার মধ্যে ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও রাজ্যপালকে দেওয়া চিঠিখানি উদ্ধৃত করছি যাতে রাজ্যে নারী নির্যাতনের ভয়াবহ চিত্র কিছুটা তুলে ধরেছিলাম। চিঠিতে যে তথ্য সন্নিবিষ্ট ছিল, তার উদ্দেশ্য ছিল অপরাধের আসল কারণ ও অপরাধীদের সাম্প্রদায়িক পরিচয়টা উন্মোচন করা।          

To,

Shree Jagdeep Dhankar Ji

The Hon’ble Governor of West Bengal,

Raj Bhawan,

Kolkata – 700 001

Subject: Action to arrest Atrocities against Women in West Bengal

Date: 03.08.20

Respected Sir,

We take this opportunity to put forward certain concerns and draw your kind attention about our beloved state, namely West Bengal, which is severely traumatised due to repeated communal as well as gender linked malevolent crimes. Over the last decade incidences of dreadful violence against women & girl children have increased in alarming proportion. Especially the last few years have witnessed a scenario no less horrific than a war time and that too with a rising trend. The culprits spare none, be it a child or an elderly lady.  

Sir, traditionally Indian society has not only revered women for playing roles of mothers, sisters, daughters, wives, or in-laws, as set by social norms, but also worshipped female deities like Saraswati, Lakshmi, Durga, Kali etc as Goddesses of Knowledge, Wealth and Power. It’s women who conceive, bear, give birth and sustain their respective races. The terms like ‘Rape’ was never in our ancient Indian dictionary. Our great epic Ramayana shows that even monstrous King Ravana begged Seeta for a favour and didn’t apply force to harm her modesty. Unfortunately, from the medieval period, dignity of women has been challenged severely and atrocities against them have increased all over the subcontinent under foreign cultural influence, which has infused heinous crimes like Rape and Gang rapes.  

Rape is the 4th most occurred crime in India. It’s the most common crime against Indian women and is a vital cause of female morbidity and mortality. In India, a rape is reported every 15 minutes, according to official government crime data as recorded by The National Crime Records Bureau (NCRB). According to the UN 54% of the cases remain unregistered. From last one decade the punishment rate of rape accused is decreasing. Since as per Indian Penal Code section 228, the identity of sexually harassed females must be kept secret, many incidents remain just unrevealed.

Apart from Rape Acid Attack is a common form of sexist violence against women in India. In 2017, 244 acid attacks were recorded across the country. In 2018, 228 acid attacks affected 240 victims. Of these, West Bengal alone recorded 50 incidents involving 53 victims ranking the top position, followed by Uttar Pradesh (40) and Delhi (11). (Asia Times, 15 Jan 2020)

Unfortunately despite violence against women is the most common and serious form of human rights violation, its remedy gets least priority in socio-economic and developmental planning.

It’s shameful on our parts to let you know that West Bengal ranks top in trafficking of girl child and woman in India. According to the NCRB report, 30,942 cases of crime against women were reported in 2012. West Bengal accounted for 12.67% of the total crime committed against women in the country while Kolkata ranked the third most unsafe metropolis for women, behind Delhi and Bangalore. (India Today, 12 June 2013)

Sharing international borders with more than one neighbouring countries, our state is now a safe haven for illegal migrants, who are not only altering the local demography through unplanned increase in their population, but also participating significantly in various forms of crime against women. The state law enforcement machinery and judicial system under their influence seem to have failed completely to deter these criminal activities. People attempting to resist such crimes are rather reportedly arrested on flimsy ground. As such the very accountability of the entire system is under question.

Apart from rapes and murders several others derogatory and unhygienic activities have also been witnessed. In last ‘Holi’ a female journalist got wet by a packet filled with human excretion thrown targeting ladies compartments. Similar nasty activities were reportedly a regular feature of Park Circus station in the Sealdah South line, but have never been taken up seriously so far. Such nuisance is temporarily under siege due to lockdown since local trains are completely immobile.

Shockingly rapes followed by the most brutal kind of murders instead of getting registered as crime are often getting masked as accidents or suicides. Even during the complete or partial lockdown period over the last few months under Covid-19 pandemic situation, such gruesome incidents are rampant in West Bengal. A list of only a few victims among many others in the last eleven months is furnished below for your reference. Most of the incidents attract attention of neither administration nor media, and hence names of the criminals remain mostly unavailable.

Stringent actions without any political and communal affiliation with speedy trials of all the culprits are of utmost requirement to control the crimes and save humanity in general.  

Sir, we seek your kind intervention with a request to forward our legitimate demands to the Home Minister of India and other concerned departments for their immediate executions.

Thanks and regards.

Yours sincerely

President and Members,

Nari Samhati

Contact: 9007511457

Continued

. A few of the many incidents collected from different news channels:

DatePlaceCrime typeVictimPrime Accused
June ‘19Bhalua, MurshidabadRape, videographing the incident, threatening of acid attack and spreading the rape videoRia Debnath escaped the 2nd attempt by the same predators Saiful Islam & Ramzal Ali Not arrested
24.08.19MedinipurRaped leading to suicide16 years old girlName not disclosed
28.10.19Domjur, HowrahRape & brutal murderLakshmi Dhara, 23 yrsName not disclosed
11.11.19  Panchasayar, KolkataGang rape  mentally retarded epilepsy patient (36 yrs)Uttam Ram & others  
24.11.19  Kalighat,Kolkata  Gang rape  2 minor girls of 13 & 15 yrs.Gaur Jadav & 2 minor boys
05.12.19Englishbazar, MaldahGangraped, tortured and burnt alive.25-30 yrs old ladyUnidentified till now
07.01.20Kumarganj, South DinajpurGang-raped, slaughtered and burnt to deathPramila Barman, 17 yearsMahabur Rahaman Mia (her lover), Pankaj Burman, Gautam Burman.
14.01.20Digha, West MedinipurRape & injury42 years ladyName not disclosed
18.01.20 RapeA deaf & dumb ladySaidul Mondal
18.01.20Haroa, North 24 ParganasAttempt to Rape causing injuryMinor girlJahangir Alam Khan, Police Officer
21.01.20Dhaniakhali, NadiaRape and brutal injurySoumi Pal, StudentAsgar Mullick
02.02.20Uluberia, Howrah Swati Samanta, studentAmir Ali
  18.02.20Haldia, East MedinipurAttempted to gang rape, battered and burnt alive to deathRia De (14), Rama DeSaddam Hossain
19.07.20Chopra, North DinajpurGangrape & murder feeding insecticideMumpy Singh, (16)Nassiruddin (free), Firoz Alam (dead). Victim’s family arrested.
22.07.20Haroa, Basirhat, North 24 ParganasRape & brutally injured at private parts, condition critical.28 years old tribal lady4 accused, name not disclosed, not convicted

Cc: Ministry of Home Affairs, Govt of India

এই তালিকায় পরে আরও অগুণতি শিকার, শিকারী ও ঘটনা যুক্ত হয়ে চলেছে। যেমন –

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সন্দেশখালি ব্লকের ন্যাজাট থানার বাউনিয়া গ্রামে ৫ই সেপ্টেম্বর ২০২০ শনিবার শিক্ষক দিবসের দিন এক আদিবাসী রমণীকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত তার প্রতিবেশী সাহাবুদ্দিন বৈদ্য। ভয়ে সিঁটিয়ে থাকা মেয়েটির পরিবার পুলিসের কাছে নয়, সাহায্য চেয়েছে ‌‘হিন্দু সংহতি কল্যাণ সমিতি’র কাছে। শুধু তাই নয় এরপর সশস্ত্র শাহাবুদ্দীন লোক জানাজানি করলে সমস্ত আদিবাসীদের মেরে ফেলারও হুমকি দিয়ে আসে। মুসলিম অধ্যুষিত সন্দেশখালির ঐ অঞ্চলে মাত্র ৫-৬ ঘর হিন্দু আদিবাসী আছে, যার মধ্যে রবি মুণ্ডা একজন। তার মেয়েকে শাহাবুদ্দীনরা কিছু করলে ব্রাহ্মণ্যবাদ বা বিজেপি বা আরএসএস-কে দোষারোপের সুযোগ নেই। তাই তফশিলি কন্যার প্রতি দরদও নেই। 

     ১১ই সেপ্টেম্বর পূর্ব বর্ধমানের সমুদ্রগড়ে এক নাবালিকা হিন্দু মেয়েকে (সূত্র থেকে নাম জানানো হয়নি) ভুলিয়ে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে রাত্রিবেলা ধর্ষণ করে ওই এলাকার শামীম আলি খান। মেয়ের মুখে সব শুনেও ভয়ে থানায় যেতে সাহস পাচ্ছিল না পরিবার। শামীমের বাড়ী থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল থানায় অভিযোগ করালে পরিণতি ভয়ঙ্কর হবে। একটি হিন্দু সংগঠনের প্রচেষ্টায় নাদনঘাট থানায় অভিযোগ নেওয়া হয় ও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে পেশ করে পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজতে নেয়। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে কালনা কোর্টে তোলার পর সরকারি কৌঁসুলী নয়, ঐ সংগঠনটির আইনজীবীদের সওয়ালের জেরে শামীম আলীর জামিন নাকচ হয় বলে সংগঠন সূত্রে জানা গেছে। [সূত্র: হিন্দু সংহতি]

                এরই মাঝে পাওয়া গেছে ক্যানিংয়ে এক মহিলার মৃতদেহ। শিকার ও শিকারীর সাম্প্রদায়িক সমীকরণ অনুমান করা যায় অভিন্ন। ১১ই সেপ্টেম্বর মালদা জেলার গাজোল থানা এলাকার জোড়গাছি গ্রামের মদনাহার পাড়ায় মালো হালদার সম্প্রদায়ভুক্ত ২২ বছরের বিবাহিতা বোবা কালা মহিলা শীলা হালদারকে লকডাউনের নির্জনতার সুযোগ নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে। অভিযুক্ত ৩৫ বছরের মাসিদুর রহামান। কুলতলি থানার মেরিগঞ্জ ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের নোয়াপাড়া গ্রামে ভোর রাতে এক হিন্দু নাবালিকাকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে নদীর চরে ধর্ষণ করে শামসুল ঘরামি। তারপর সেখানেই মেয়েটিকে ফেলে পালিয়ে যায়, দয়া বা তাড়া বশত খুন করেনি যদিও।

১২ই সেপ্টেম্বর ২০২০ বাবা বিজেপি কর্মী সেই অপরাধে হুগলী জেলার গোঘাট থানাধীন মামুদপুর গ্রামের ১৭ বছরের রিম্পা প্রামাণিককে ধর্ষিত হয়ে খুন হতে হল। মেয়েটি টিউশন পড়তে গিয়ে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ায় বাবা অসিত প্রমাণিক থানায় ডায়রি করার পর উদ্ধার হয় গাছে ঝুলন্ত তার মৃতদেহ।  দোষীদের শাস্তি হবে না, কারণ তারা হিন্দু স্বার্থে কাজ করা একজন বিজেপি কর্মীর কন্যাকে ধর্ষণ ও খুন করেছে। উত্তরবঙ্গে পুণ্ডিবাড়ির দ্বিতীয় শ্রেণীর একটি বাচ্চা মেয়েও ধর্ষিতা হল মুসলিম আততায়ী দ্বারা। এই বাচ্চাটিও তথাকথিত দলিত। কিন্তু সংবাদ মাধ্যম বা লাল সবুজ বহুরূপী বুদ্ধিজীবীদের তা নিয়ে দীর্ঘশ্বাসটুকু ফেলারও সময় কোথায়?

নদীয়ার হাঁসখালি ব্লকের মামজোয়ান নামের এক জায়গায় হিন্দু নাবালিকা জিহাদি মাফিয়াদের দ্বারা ধর্ষিত হয়েও পুলিসের সাহায্য পায়নি। হিন্দু জাগরণ মঞ্চের মধ্যস্থতায় অভিযোগ জানানো হলেও দুষ্কৃতীকে বাঁচানোর জন্য মেয়েটিকে ভয় দেখিয়ে তার মিথ্যে জবানবন্দী লিপিবদ্ধ করা হয়। লাভ জেহাদ নিয়ে হিন্দু সমাজের অভিভাবকরা নিত্যদিন হিন্দু মেয়েদের উপদেশ ও দোষ দুটোই দিয়ে চলেছে। এই মেয়েটির দোষ ছিল জেহাদীর প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করা। অনুরূপ অপরাধে অনেক মেয়েই অ্যাসিড আক্রান্ত হয়ে জীবন্মৃত হয়ে আছে বা দগ্ধে দগ্ধে চলে গেছে। ওদিকে দেনা শোধ করতে না পেরে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র তুষার চক্রবর্তীকে অপহরণ করে দা দিয়ে কেটে হত্যা করে মণিরুল শেখ। ‘ভিক্টিম ব্লেমিং’ জারি রেখে হিন্দু পুরুষরাও রেহাই পাচ্ছে কৈ?

ধনেখালিতে এই লাভ জেহাদের সম্পর্ক থেকে মুক্তি লাভের চেষ্টা করা মাত্র সৌমী পালের গলায় ধারালো অস্ত্রের কোপ মারে আসগর মল্লিক। বীরভূমে অ্যাসিডে দগ্ধানো এক হিন্দু মহিলার ছবি কিছুদিন সামাজিক মাধ্যমে ঘোরাফেরা করে মিলিয়ে গেল। এমনকি কলকাতার উপকণ্ঠ সোদপুরের মতো শহরাঞ্চলেও মুসলিম পুরুষের প্রেমের ভান করে অপহরণ ও ধর্ষণ করার মতো ঘটনা শোনা যচ্ছে। যেহেতু মূলস্রোতের মিডিয়া এসব খবর করে না, তাই এগুলো সোশাল মিডিয়ার অসমর্থিত সূত্র থেকেই সংগ্রহ করতে হয়। প্রমাণস্বরূপ চোখে ভেসে ওঠে কিছু শিউরে ওঠা ছবি বা হাড় হিম করা ভিডিও। তালিকা আর কত দীর্ঘ করব?

তবে বিজেপি-র মহিলা মোর্চার সদস্যারা সিলেক্টিভ কাঁদুনে নন। তাই ধারাবাহিক খুন ধর্ষণগুলোর সাম্প্রদায়িক চরিত্র আন্ডারলাইন না করেই সংগ্রামে নেমেছেন। সভানেত্রী ছুটে গেছেন বিষ্ণুপুরে শ্বশুরবাড়িতে আগুনে পুড়িয়ে মারা হিন্দু মেয়েটির শোকগ্রস্ত পরিবারের কাছেও। আবার সোচ্চার হয়েছেন অতি সম্প্রতি ২০২০-র ডিসেম্বরের শেষে উঠে আসা পুরুলিয়া জেলার শিমুলিয়ার একটি সরকারি অনাথালয় ‘আনন্দমঠ’ জুভেনাইল হোমে ঘটা নাবালিকাদের ওপর নিয়মিত যৌন নির্যাতনের বিরুদ্ধেও। পুরুলিয়া জেলা আদালত সূত্রে খবর, গত ২৪ তারিখ দুই নাবালিকার আদালতে অভিযোগের ভিত্তিতে হোমে যান বিচারক। অভিযোগ দায়ের হয় পুরুলিয়া মহিলা থানায়। অতীতে বাম আমলেও এমন ঘটনার কথা জানা যায়। কয়েকজন নাবালিকা পালানোর পর থেকে পাঁচিল উঁচু করে সিসি টিভি ও পুলিস মোতায়েন রেখে কড়া প্রহরার পরেও এক বহিরাগত যুবক কী করে জনৈক ‌‘শিশিরকাকু’র মদতে দিনের পর দিন দুই বা ততোধিক মেয়েকে অপকর্মে ব্যবহার করে গেছে – এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গেলে প্রথম যে উত্তরটি মেলে, তা হল কর্তৃপক্ষের নিশ্চিত যোগশাযোশ। পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি-র মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পালসহ অন্যান্য সদস্যরা ঘটনার প্রতিবাদে পশ্চিমবঙ্গ শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশনের দ্বারস্থ হলে চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তীর সদুত্তর তো দূর, দেখাও পাননি প্রথমবার। কেন জানি ঢাকা-চাপা দেওয়ার তোড়জোড় দেখে সন্দেহ হচ্ছে, সেই বহিরাগত যুবক দুধেল গোরু সম্প্রদায়ের নয় তো?

সূত্র:

  1. https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1600174240157345&id=565296436978469
  2.  Purulia-র সরকারি হোমে নাবালিকাদের ওপর ‘যৌন নির্যাতন’, পশ্চিমবঙ্গ শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশনের দ্বারস্থ BJP

https://bengali.abplive.com/videos/news/state-purulia-minors-were-allegedly-sexually-abused-in-government-home-777114

  1. পুরুলিয়ার হোমে নাবালিকাদের ওপর যৌন নির্যাতনের অভিযোগ,কোর্টের নির্দেশে শুরু তদন্ত

https://bangla.hindustantimes.com/bengal/districts/purulia-juvenile-home-authority-accused-of-molesting-2-minor-girlchild-31609388602712.html

  1. বহিরাগতদের আনাগোনা, দিনের পর দিন হোমে নাবালিকাদের যৌন নির্যাতনের অভিযোগ

https://zeenews.india.com/bengali/state/allegations-of-sexual-abuse-of-minors-at-home-day-after-day_361224.html

শ্রীপর্ণা বন্দ্যোপাধ্যায়

চতুর্থ পর্ব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.