অন্দরসজ্জা থেকে পোশাক, বাথ থেকে বিউটির সব প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেই সাফল্যের ছাপ রেখেছেন মহিলারা। এমন কয়েকজন মহিলা, যাঁরা কঠিন রাস্তা বেছে নিয়েই ব্যবসার দুনিয়ায় সফল হয়েছেন।

পুরুষ ও মহিলাদের মধ্যে তুলনা করা হয়, তবে মহিলাদের এগিয়ে থাকা একাধিক বিষয়ের মধ্যে অন্যতম মাল্টিটাস্কিং। বাড়িতে একসঙ্গে ডজন বিষয়ে নজর রাখা থেকে বাড়ির বাইরেও বিবিধ ভাবে সফল হওয়া। পরিচিত ছক ভেঙে, সীমা অতিক্রম করে এভাবেই এগিয়ে চলেছে বিশ্বের নারী-শক্তি। বিনিয়োগকারী হিসেবে, শিল্পোদ্যোগী হিসেবে অধুনা ভারতে সম্মান পাচ্ছেন মহিলারা। সেই সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে। এবং লক্ষাধিক আরও নারীশক্তির জোগান দিচ্ছে তাঁদের সাফল্যের কাহিনি। ব্যবসায় মহিলা-সংখ্যা বৃদ্ধির সময়ই, তাঁদের নিজস্ব পণ্যের ব্র্যান্ডিং ও বিক্রির সুযোগ করে দিচ্ছে Qtrove.com।

অন্দরসজ্জা থেকে পোশাক, বাথ থেকে বিউটির সব প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেই সাফল্যের ছাপ রেখেছেন মহিলারা। এমন কয়েকজন মহিলা, যাঁরা কঠিন রাস্তা বেছে নিয়েই ব্যবসার দুনিয়ায় সফল হয়েছেন।

সঙ্গীতা দেসাই, র‌্যনেচার (RawNature)

ফ্যাশন ডিজাইনার, মহিলা ব্যবসায়ী, শিল্পোদ্যোগী। বিগত ২৫ বছর ধরে প্রত্যেক ক্ষেত্রেই সফল হয়েছে সঙ্গীতা। তিনি র‌‌্যনেচার সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা। প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহারে সুপারফুড ও বিউটি প্রোডাক্ট উৎপাদন করে তাঁর সংস্থা। এই প্রোডাক্টগুলি রং এবং রাসায়নিক-মুক্ত হয়। ২০১৭ সালে ‘অ্যাসথেটিকস’ নয়া পড়াশোনা শেষ করে র‌্যনেচার-এর সূচনা করেন সঙ্গীতা। তাঁর উদ্যোগের কারণেই রূপচর্চায় নিরাপদ উপকরণ বেছে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন ক্রেতারা। গ্রুমিং প্রোডাক্টে ক্ষতিকারক রাসায়নিক ব্যবহারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে নজির গড়েছেন বিরল প্রতিবন্ধকতা নিয়ে জন্মানো সঙ্গীতা। জন্ম থেকেই এক হাতের একটি আঙুল ছিল না তাঁর। তবে সেই Symbrachydactyly-কে হার মানিয়ে জীবন যুদ্ধে সফল হয়েছেন সঙ্গীতা দেসাই।

শীতল কাবরা, আর্থি সাপো (Earthy Sapo)

৯ বছর কর্পোরেট দুনিয়ায় দাপিয়ে কাজ করার পর ব্রেক নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন শীতল কাবরা। এই ব্রেকের সময়ই নিজের হারিয়ে যাওয়া ভালোবাসা খুঁজে পান তিনি। একইসময়ে প্রাকৃতিক প্রোডাক্টের গুরুত্ব ও প্রয়োজন সম্পর্কে ধারণা হয় তাঁর। বিশেষত পার্সোনাল কেয়ার বা ব্যক্তিগত রূপচর্চার ক্ষেত্রে। শিশুদের জন্য সাবান বা বেবিসোপ ব্যবহারের সময় নিজের সন্তানের সমস্যা বুঝে নিজেই সাবান তৈরি করেন শীতল। তাঁর বানানো সাবান ও বাজারের বেবিসোপ-এর মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পেরেই এই ব্যবসাতেই পা রাখেন শীতল। প্রথমে পরিবার ও বন্ধুদের মধ্যেই সেই সাবান বিক্রি শুরু করেন তিনি। এবং এভাবেই আর্থি সোপ-এর জন্ম হয়। আজ প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরি সাবান, তেল, শ্যাম্পু, কন্ডিশনার ইত্যাদি প্রোডাক্ট বিক্রি করে তারা।

কাঞ্চন রাকেশ, দাদিস হ্যান্ডমেড পিকল (Dadi’s Handmade Pickle)

ভারতীয় রান্নাঘরে আচারের আলাদা গুরুত্ব থাকে। যে কোনও খাবারের শেষে আচার আলাদা স্বাদ যোগ করে। প্রায় প্রতি পরিবারেরই নিজস্ব আচারের তৈরির সিক্রেট থাকে। যা চলে আসছে প্রজন্ম ধরে। পরিবারের এই সিক্রেটকেই বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছেন কাঞ্চন রাকেশ। তৈরি করেছেন, ‘দাদিস হ্যান্ডমেড পিকল।’ আম থেকে লঙ্কা, আচার-প্রেম জিইয়ে রেখেছেন কাঞ্চন।

সোমিয়া খন্না, দ্য সোপ কোম্পানি ইন্ডিয়া (The Soap Company India)

আলওয়ার থেকে বেঙ্গালুরু – জীবনে এভাবেই পরিবর্তন এনেছেন সোমিয়া খন্না। স্বামী পবন আহুজাকে নিয়ে দ্য সোপ কোম্পানি ইন্ডিয়া চালু করেন সোমিয়া। রাজস্থানের গ্রামের মহিলাদের ট্রেনিং দিয়ে স্নেহ-সমৃদ্ধ বিশেষ সাবান তৈরির কাজে নিযুক্ত করেছেন তিনি। ব্র্যান্ডের বৃদ্ধি যাতে গ্রামের ওই মহিলারাও পান, তা নিশ্চিত করেছেন সোমিয়া।

Qtrove.com যে আদর্শে বিশ্বাস করে, তার প্রতিফলন যে হাজার হাজার নারীর জীবনে রয়েছে, তার মধ্যে কয়েকজনকেই তুলে ধরা হল। প্রাকৃতিক প্রোডাক্টের বৃদ্ধি এবং মানুষের কাছে এই ধরনের প্রোডাক্ট ব্যবহারের সুযোগ তুলে ধরেই নিজেদের সাফল্যের কাহিনি লিখেছেন এই মহিলা ব্যবসায়ীরা।

Aishwarya Krishnan

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.