এবারও বারাণসী লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রটেছিল যে এবার মোদি বারাণসী কেন্দ্র থেকে দাঁড়াবেন না। প্রার্থী হবেন অন্য কেন্দ্রে। এক্ষেত্রে, উঠে আসছিল পুরীর নাম। কিন্তু, সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিজেপির সংসদীয় কমিটি বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, বারাণসী থেকেই প্রার্থী করা হবে নরেন্দ্র মোদিকে। পাশাপাশি, অন্য একটি কেন্দ্র থেকেও মোদিকে দাঁড় করানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি। তবে, সেটা কোন কেন্দ্রে, সেটা এখনও স্থির হয়নি। সেই ব্যাপারে শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে বিজেপি নেতৃত্ব জানিয়েছেন।

গত লোকসভা নির্বাচনের সময় বিজেপি সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, আর ৭০ বছরের বেশি বয়সিদের প্রার্থী করা হবে না। এমনকী, ৭০-এর কাছাকাছি বয়সিদেরও প্রার্থী করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ভেবে-চিন্তে। যা নিয়ে দলে জল্পনা তুঙ্গে উঠেছিল। এবার অবশ্য পরিস্থিতি কঠিন বলেই ইঙ্গিত দিয়েছে সমীক্ষা। তাই, সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে গেরুয়া শিবির। জানিয়েছে, জেতার ক্ষমতা রয়েছে, এমন যে কোনও ব্যক্তিকেই দলের প্রার্থী করা হবে। বর্তমান বিজেপি সাংসদদের মধ্যে লালকৃষ্ণ আডবাণীর বয়স ৯১, মুরলী মনোহর যোশীর বয়স ৮৫, কলরাজ মিশ্রের বয়স ৭৭। শুধু তাই নয়, দলের বহু নেতারই বয়স ৭০-এর কাছাকাছি।

বেশ কিছুদিন আগে থেকেই বিজেপি লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠনকে মজবুত করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। লোকসভা পালক, বিধানসভা পালক, বিস্তারক-সহ নানা পদ তৈরি করে দলে সংগঠনকে চাগিয়ে তোলার চেষ্টা করে চলেছে। পাশাপাশি, নানা নাম-কা-ওয়াস্তে পদ তৈরি করে কর্মীদের কাজে উৎসাহ বাড়াতে চেষ্টা করে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে মোদির নির্বাচনী কেন্দ্র ঘোষণা করে লোকসভা ভোটের প্রচার তুঙ্গে তোলার চেষ্টা শুরু করল গেরুয়া শিবির।

চিন্ময় ভট্টাচার্য

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.