সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন চলছে। তিন দফার ভোট গ্রহণ হয়ে গিয়েছে। এখনও চার দফা বাকি রয়েছে। এই অবস্থায় জমে উঠেছে রাজনৈতিক নেতাদের বক্তব্য নিয়ে লড়াই এবং বিতর্ক।

ভারতে থাকতে হলে বলতেই হবে বন্দেমাতরম। অন্যথায় সেই ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এমনই মন্তব্য পেশ করেছেন বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। চলতি সপ্তাহের শুক্রবারে করা তাঁর এই বক্তব্য থেকে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

উত্তর প্রদেশের বালিয়া বিধানসভা থেকে ২০১৭ সালে জিতেছিলেন সুরেন্দ্র। শুক্রবারে লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের জন্য নিজের কেন্দ্রেই সভা করেন তিনি। সেই সময়েই বন্দেমাতরম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য শোনা গিয়েছে বিধায়কের মুখে। তিনি বলেছেন, “বন্দেমাতরম গান একটা আবেগ। কিন্তু ভারতে থাকতে হলে এই গান গাওয়া বাধ্যতামূলক। এই গান সংস্কৃত হলেও তা উর্দুতে অনুবাদ করা যায়।”

হৃদয় থেকে এই গান না গাইতে চাইলে তাদের ভারতে থাকার কোনও অধিকার নেই বলে দাবি করেছেন বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। তাঁর হাতে ওই ধরনের ক্ষমতা থাকলে তিনি এমন কোনও বড় পদক্ষেপ নিয়েও দেখিয়ে দিতেন বলে দাবি করেছেন বালিয়ার বিধায়ক। তাঁর কথায়, “যদি এটা আমার হাতে থাকতো, তাহলে আমি বন্দেমাতরম গাইতে না চাওয়া ব্যক্তিদের পাসপোর্ট করে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দিতাম।”

বন্দেমাতরম গান নিয়ে ভারতে বিতর্ক নতুন কিছু নয়। দীর্ঘ দিন ধ্রেই এই নিয়ে বিতর্ক চলছে। প্রথম ইউপিএ জমানায় এই গান নিষিদ্ধ করার জল্পনাও শোনা গিয়েছিল। গত চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে এই গান নিয়ে অনেক জলঘোলা হয়েছে। যা নিয়ে অনেক রাজনৈতিক বিতর্কও হয়েছে। তবে চূড়ান্ত সমাধান কিছু এখনও হয়নি। মুসলিম ধর্মের মানুষেরা এই গান গাইতে নারাজ। বন্দেমাতরম শব্দে তাঁদের আপত্তি আছে। যা নিয়েই বিতর্ক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.