প্রতারণা করতে রাজভবনের ভুয়ো ঠিকানা ব্যবহারের অভিযোগ সনাতনের বিরুদ্ধে

প্রতারণা করে জমি দখলে গিয়ে রাজভবনের ঠিকানা ব্যবহারের অভিযোগ আইনজীবী সনাতন রায়চৌধুরীর বিরুদ্ধে। পুলিশের দাবি, তাঁর দখল করা জমির প্রোমোটারের বাসস্থান হিসাবে যে ঠিকানা দিয়েছেন তিনি তা ভুয়ো। ওই ঠিকানা আসলে কারও বাড়ি বা অফিস নয়, রাজভবনের কর্মীদের আবাসন।

গত ২৭ জুন দক্ষিণ কলকাতার ম্যান্ডেভিলা গার্ডেনের এক বাসিন্দা বাড়ি ফিরে দেখেন, তাঁর বাড়িতে জাঁকিয়ে বসেছেন সনাতন। বাড়ির মালিককে তিনি জানান, কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে প্রায় ১০ কোটি টাকা দামের ওই সম্পত্তি দখল করেছেন তিনি। ওই ব্যক্তি পুলিশকে অভিযোগে জানান, অমরনাথ মাহাতো নামে এক প্রোমোটারের নামও বলেন সনাতন। জানান তাঁর বাসস্থান ৬-১ ক্রস রোড। কিন্তু তদন্তে নেমে পুলিশ আধিকারিকরা জানতে পারেন, ওই ঠিকানা আসলে রাজভবনের কর্মী আবাসনের। সেখানে বহু আগে থাকতেন অমরনাথ মাহাতো নামে এক ব্যক্তি।

তদন্তে সনাতনের ব্যাপারে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছেন তদন্তকারীরা। তাঁরা জানিয়েছেন, জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে ২০০৯ সালে দমদম কেন্দ্র থেকে লোক জনশক্তি পার্টির টিকিটে প্রতিদ্বন্দিতা করেছিলেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিনিধি হিসাবে যোগ দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিকস শীর্ষ সম্মেলনে। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরে ভুয়ো পরিচয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন সনাতন। এমনকী নিজেকে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের উপদেষ্টা বলে দাবি করে গত ২৫ জুন কলকাতার তালতলা থানার ওসিকে ফোন করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.