Pallavi-Sagnik: পল্লবীর মৃত্যুর দিনে পর পর কী কী ঘটেছিল? তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক নতুন তথ্য

1/10রবিবার সকালে মৃত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে অভিনেত্রী পল্লবী দে’কে। তাঁর মৃত্যু নিয়ে এখনও নানা ধোঁয়াশা রয়েছে। কিন্তু জেরা এবং তদন্ত চালিয়ে পুলিশ একের পর এক নতুন তথ্য জানতে পেরেছে।

কী হয়েছিল রবিবার সকালে? যখন পল্লবীকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, তখন সাগ্নিক কী করছিলেন? এ সব নিয়ে নানা তথ্য উঠে আসছে। 
2/10কী হয়েছিল রবিবার সকালে? যখন পল্লবীকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, তখন সাগ্নিক কী করছিলেন? এ সব নিয়ে নানা তথ্য উঠে আসছে। 
পুলিশ সূত্রে খবর, সাগ্নিক নাকি জানিয়েছেন, ঘটনার সময়ে তিনি ফ্ল্যাটের বারান্দায় ধূমপান করতে গিয়েছিলেন। তখন পল্লবী শোওয়ার ঘরের দরজা ভিতর থেকে আটকে দেন। অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়া পাওয়া যায়নি তাঁর। ওই সময়ে তাঁদের মধ্যে কোনও কথা কাটাকাটি বা ঝগড়া হয়েছিল কি না, পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। 
3/10পুলিশ সূত্রে খবর, সাগ্নিক নাকি জানিয়েছেন, ঘটনার সময়ে তিনি ফ্ল্যাটের বারান্দায় ধূমপান করতে গিয়েছিলেন। তখন পল্লবী শোওয়ার ঘরের দরজা ভিতর থেকে আটকে দেন। অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়া পাওয়া যায়নি তাঁর। ওই সময়ে তাঁদের মধ্যে কোনও কথা কাটাকাটি বা ঝগড়া হয়েছিল কি না, পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। 
যদিও সাগ্নিকের দাবি, ঘটনার দিন কোনও অশান্তি হয়নি। পুলিশ নাকি জানতে পেরেছে, তাঁর মদ ও গাঁজার প্রতি আসক্তি রয়েছে। তাই নিয়েও পল্লবীর সঙ্গে অশান্তি হত মাঝে মধ্যে।
4/10যদিও সাগ্নিকের দাবি, ঘটনার দিন কোনও অশান্তি হয়নি। পুলিশ নাকি জানতে পেরেছে, তাঁর মদ ও গাঁজার প্রতি আসক্তি রয়েছে। তাই নিয়েও পল্লবীর সঙ্গে অশান্তি হত মাঝে মধ্যে।
সাগ্নিক নাকি পুলিশের কাছে দাবি করেছেন, ডাকাডাকিতে সাড়া না পেয়ে তিনি কাচের দরজা দিয়ে দেখার চেষ্টা করেন। আবছা বুঝতে পারেন, কী হচ্ছে। তখন তিনি দরজা ভাঙেন। ভিতরের দৃশ্য দেখে কেয়ারটেকারকে চিৎকার করে ডাকেন। তিনি আসেন। পুলিশে ফোন করেন ফ্ল্যাটের সেই কর্মীই।
5/10সাগ্নিক নাকি পুলিশের কাছে দাবি করেছেন, ডাকাডাকিতে সাড়া না পেয়ে তিনি কাচের দরজা দিয়ে দেখার চেষ্টা করেন। আবছা বুঝতে পারেন, কী হচ্ছে। তখন তিনি দরজা ভাঙেন। ভিতরের দৃশ্য দেখে কেয়ারটেকারকে চিৎকার করে ডাকেন। তিনি আসেন। পুলিশে ফোন করেন ফ্ল্যাটের সেই কর্মীই।
এর পরে সাগ্নিকই নাকি পল্লবীর মাকে ফোন করে জানান। তবে তিনি নাকি বলেছিলেন, পল্লবী অচৈতন্য। পুলিশকে এমনটাই জানিয়েছেন সাগ্নিক। তবে তাঁর কথা কতখানি ঠিক তা জানার জন্য পুলিশ তদন্ত করছে।
6/10এর পরে সাগ্নিকই নাকি পল্লবীর মাকে ফোন করে জানান। তবে তিনি নাকি বলেছিলেন, পল্লবী অচৈতন্য। পুলিশকে এমনটাই জানিয়েছেন সাগ্নিক। তবে তাঁর কথা কতখানি ঠিক তা জানার জন্য পুলিশ তদন্ত করছে।
এদিকে সোমবার পল্লবীর বাবা নীলু দে অভিযোগ করেন গড়ফা থানায়। সঙ্গে ছিলেন পল্লবীর মা ও ভাই। তাঁদের আইনজীবী। সাগ্নিক চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে পল্লবীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে পল্লবীর পরিবারের তরফে। পল্লবীকে দিনের পর দিন মানসিক নির্যাতন করতেন সাগ্নিক, এমন কথাও বলেছেন তাঁরা।  
7/10এদিকে সোমবার পল্লবীর বাবা নীলু দে অভিযোগ করেন গড়ফা থানায়। সঙ্গে ছিলেন পল্লবীর মা ও ভাই। তাঁদের আইনজীবী। সাগ্নিক চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে পল্লবীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে পল্লবীর পরিবারের তরফে। পল্লবীকে দিনের পর দিন মানসিক নির্যাতন করতেন সাগ্নিক, এমন কথাও বলেছেন তাঁরা।  
পরিবারের অভিযোগ, একাধিক মহিলার সঙ্গে গোপন সম্পর্ক রয়েছে সাগ্নিকের। পল্লবীর পরিবারের আরও অভিযোগ, আগের রেজিস্ট্রি বিবাহের কথা সাগ্নিকের পরিবার গোপন করে যায় পল্লবীর কাছে।
8/10পরিবারের অভিযোগ, একাধিক মহিলার সঙ্গে গোপন সম্পর্ক রয়েছে সাগ্নিকের। পল্লবীর পরিবারের আরও অভিযোগ, আগের রেজিস্ট্রি বিবাহের কথা সাগ্নিকের পরিবার গোপন করে যায় পল্লবীর কাছে।
সাগ্নিকের নেশার অভ্যাস এবং ব্যক্তিগত সম্পর্কের টলমল জায়গার কারণেই দু’জনের মধ্যে অশান্তি হত। এমনই বলা হয়েছে পল্লবীর পরিবারের তরফে।
9/10সাগ্নিকের নেশার অভ্যাস এবং ব্যক্তিগত সম্পর্কের টলমল জায়গার কারণেই দু’জনের মধ্যে অশান্তি হত। এমনই বলা হয়েছে পল্লবীর পরিবারের তরফে।
ইদানীং পল্লবীর এক পরিচিত তরুণী সঙ্গে নাকি সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন সাগ্নিক। তাঁকে নিয়েও অশান্ত হত। এমনই দাবি পল্লবীর পরিবারের।
10/10ইদানীং পল্লবীর এক পরিচিত তরুণী সঙ্গে নাকি সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন সাগ্নিক। তাঁকে নিয়েও অশান্ত হত। এমনই দাবি পল্লবীর পরিবারের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.