নৈপথ্যে জমির বিবাদ, দুই পরিবারের সংঘর্ষ, গরম ভাতের ফ্যানে ঝলসে আহত ৩

পুরনো জমি বিবাদ ছিলই। তার উপর বাইক রাখা নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ চলাকালীন গরম ভাতের ফ্যান ঢেলে দেওয়ায়, গুরুতর আহত হলেন দুই মহিলা ও এক ব্যক্তি। শরীরের চামড়া ঝলসে যায় তাঁদের। ঘটনায় ৬জন আহত হন। আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়। অভিযোগ উঠেছে, দুই পরিবার বাঁশ লাঠি নিয়ে একে অপরের উপর চড়াও হয়। তার পরেই মগে করে গরম ভাতের ফ্যান ছোঁড়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার বেলুড়ে। বেলুড় থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। দু‘পক্ষের পরিবারের সদস্যদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দির্ঘদিন ধরে দুই প্রতিবেশী পরিবারের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত বিবাদ চলছিল। একপক্ষের অভিযোগ, তাঁদের প্রতিবেশীরা জমি দখল করে তার উপর বেআইনিভাবে বাড়ি তৈরি করেছে। এই নিয়ে থানা পুলিশও হয়। একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে সরব হয় দুই পরিবারই। এই নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে চাপা উত্তেজনা ছিলই। ঘটনার রাতে বাইক রাখাকে ঘিরে ফের দুই পরিবারের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বেধে যায়।

বাঁশ লাঠি এমনকী, কাটারি নিয়ে একে অপরের উপর চড়াও হয় দুই পরিবার। সংঘর্ষ চলার সময়ই এক পরিবারের যুবক মগে করে গরম ফ্যান নিয়ে এসে অপর পরিবারের মহিলাদের লক্ষ্য করে ছুঁড়ে দেয়।

সঙ্গে সঙ্গে গরম ফ্যান গায়ে পড়ে দুই মহিলা ও এক ব্যক্তির শরীর ঝলসে যায়। মাটিতে পড়ে তাঁরা কাতরাতে শুরু করেন। এই ঘটনার পরই বিবাদ চরম আকার ধারণ করে। একে অপরকে এলোপাথাড়ি মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে পুলিশ। তবুও সংঘর্ষ থামেনি। পুলিশের উপস্থিতিতেই গণ্ডগোল চলতে থাকে। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.