ভারতীকে পাথর, তৃণমূল সরকারের সময় শেষ বলে মনে করছেন জাভড়েকর

নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: রবিবার ষষ্ঠদফার নির্বাচনে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষকে দিনভর আটকে থাকতে হয়েছে৷ তৃণমূল কংগ্রেস বুথ দখল করে রিগিং চালাচ্ছে এই অভিযোগ বারবার করা সত্ত্বেও ভারতী তার কেন্দ্রে ‘মুক্ত বিহঙ্গে’র মতে উড়ে বেড়াতে পারেননি৷ তৃণমূলের পালটা বিক্ষোভে দিনভর আটকেই থাকতে হয়েছে ভারতীকে৷ একসময় ‘জঙ্গলমহলের মা‘ বলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই৷

রবিবার মাতৃদিবসের শেষে সেই ‘মা’কেই বিষোদাগার করেছেন ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী৷ তবে বিজেপির জাতীয় নেতৃত্ব ভারতীর পাশেই পাশেই দাড়িয়েছেন৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর সোমবার জানিয়েছেন, বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ রবিবার ভোট চলাকালীন আক্রান্ত হয়েছেন৷ এই কাজ হতাশা থেকেই করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ ভারতী ঘোষের উপর আক্রমণ তৃণমূলের হতাশার বহিঃপ্রকাশ৷ ইতিমধ্যেই নির্বাচনের দিন ভারতীয় বিষয়টি নিয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে নালিশ জানিয়েছে বিজেপি৷

প্রসঙ্গত, প্রাক্তন এই আইপিএস অফিসার ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে থেকে লড়াইয়ের শুরুতেই বিভিন্ন বিতর্কিত কান্ড বাধিয়েছিলেন৷ একসময় হুমকির সুরে বলেছিলেন, তৃণমূলকে রুখতে উত্তরপ্রদেশ থেকে ছেলে এনে কুকুরের মতো মারবেন৷ ওই ঘটনার ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়৷ রবিবার ভারতীর নির্বাচনী এজেন্টকে বুথে বসাতে গিয়ে তৃণমূলের মহিলা কর্মী সমর্থকদের রীতিমতো হেনস্থা হন তিনি৷ অন্তত তার পার্টি সেই অভিযোগই করেছে৷ ধাক্কাধাক্কির মাঝে পড়ে যান প্রাক্তন এই পুলিশ কর্তা। তাঁর পায়ে চোটও লাগে।

এরপর তিনি একটি স্থানীয় মন্দিরে আশ্রয় নেন৷ ইতিমধ্যে ঘটে গিয়েছে বড় ঘটনা৷ ভারতীর উপর যখন আক্রমণ হয়েছিল, তার দেহরক্ষীরা শূন্যে গুলি চালায়৷ কিন্তু অভিযোগ উঠেছে একটি গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে বখতিয়ার খান নামে এক তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর গায়ে লাগে৷ ওই আহত কর্মীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷ পরে ভারতীর প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূল প্রার্থী দেব ওই আহত ব্যক্তির বাড়িতে যান৷ এদিকে মন্দির থেকে ভারতীকে পাশের কেশপুর থানায় নিয়ে যায় পুলিশ৷ ওই থানায় ১ ঘন্টা থাকার পর অনত্র চলে যান বারতী? কিন্তু যেখানে গিয়েছেন সেখানেই তৃণমূল ভাতীর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখিয়েছে৷

ভারতীর গাড়ি ভাঙা হয়েছে৷ আবার তাঁর ওপর আক্রমণ হয়। ভারতীর কয়েকজন নিরাপত্তা রক্ষীও আহত হন। কিন্তু এই ঘটনাকে হাতিয়ার করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ শাণিয়েছে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের নেতৃত্বে একটি দল দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের অফিসে যায়। ঘাটালে রবিবার ভারতী ঘোষের সঙ্গে যা ঘটেছে তা কমিশনকে অভিযোগ হিসাবে করা হয়েছে।

প্রকাশ জানিয়েছেন, তৃণমূল প্রমাণ করেছে তারা হতাশায় ভুগছে। ভারতী ঘোষের উপর আক্রমণ তৃণমূলের হতাশার বহিঃপ্রকাশ৷ বিজেপি প্রার্থীর গাড়ি লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়েছে৷ তৃণমূল গুণ্ডাগিরির শেষ সীমায় পৌঁছেচে৷ প্রার্থী নিজে আহত হয়েছেন। ভোট চলাকালীন ভারতী ঘোষের গাড়িও বাজেয়াপ্ত করেছে রাজ্য প্রশাসন। অভিযোগ, ভোটের সময় প্রার্থীর সঙ্গে গাড়ি রাখতে প্রক্রিয়া করা উচিত ছিল তা ওই গাড়ির ক্ষেত্রে করা হয়নি। এই ঘটনা প্রকাশের মতে, তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে হতাশা প্রকাশ করছে, তা থেকে এই পরিষ্কার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সময় শেষ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.