ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে যদি চালক ছাড়াই চলতে শুরু করে ট্রেন, তাহলে তো মহা বিপদ। সেই আতঙ্কেই সুপার সাইক্লোন ফণী আছড়ে পড়ার আগে ইয়ার্ডে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের সমস্ত কামরা মোটা শেকল দিয়ে তালা আটকে দিল দক্ষিণপূর্ব রেল।

দক্ষিণ পূর্ব রেলের সাঁত্রাগাছি, শালিমার সমস্ত ইয়ার্ডেই আজ ট্রেন লাইনের সঙ্গে কামরাগুলোকে চেন আটকে তালা দিয়ে দেওয়া হল। রেল কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছেন, শুনতে যতই অবাক লাগুক, ঝোড়ো হাওয়ার দাপটে রেল ইঞ্জিনের এগিয়ে যাওয়া নতুন কোনও ঘটনা নয়। এমনটা নাকি হামেশাই ঘটে। এরফলে লাইনচ্যুত হওয়া, বা অন্য ট্রেনকে ধাক্কা মারার মতো ঘটনা এড়াতেই এই তালা আটকানোর ব্যবস্থা।

দক্ষিণ পূর্ব রেলের এক আধিকারিক জানান, বছরখানেক আগে ঝড়ের দাপটে ওড়িশার একটি স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা উৎকল এক্সপ্রেস গড়িয়ে গড়িয়ে চলে গিয়েছিল পরের স্টেশনে। এমন ঘটনা ঘটেছে আগেও। স্রেফ হাওয়ার দাপটে ২৫ টনের একএকটি কামরা গড়িয়ে গিয়েছে অবলীলায়।

এ বার সুপার সাইক্লোন ফণীর আতঙ্কে তাই আগাম সতর্ক রেল। দক্ষিণ পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ বলেন, “এটা রেলের বিধিবদ্ধ সতর্কতা। কারণ একটা দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেন যদি হাওয়ার দাপটে হঠাৎ চলতে শুরু করে তাহলে সমূহ বিপদ। এই সুপার সাইক্লোন ফণীর ক্ষমতা আন্দাজ করেই তাই ট্রেনের কামরা চেন দিয়ে বেঁধে রাখার ব্যবস্থা।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.