উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে সাইক্লোন। ইতিমধ্যে ওডিশাতে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পর্যটকদের রাজ্য ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রশাসনের তরফেও তোড়জোর তুঙ্গে। শুধু ওডিশাই নয়, সাইক্লোন ফেনীর প্রভাব পড়বে বাংলাতেও। বিশেষ করে কলকাতার উপর থেকে ৮০ থেকে ১০০ কিমি বেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে। এই অবস্থায় বাংলায় বাতিল করা হল প্রধানমন্ত্রী মোদীর সভা। আগামী শনিবার অর্থাৎ ৫ তারিখ হলদিয়াতে মোদীর সভা ছিল।

জেলা বিজেপি নেতৃত্ব জানিয়েছে সেই সভা এই ঘুর্ণিঝড়ের কারণে বাতিল করা হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে রবিবার সেই সভা হওয়ার কথা রয়েছে। ইতিমধ্যে সাইক্লোনের কারণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর সভা বাতিল করেছেন।

প্রসঙ্গত, কাথি এবং তমলুক লোকসভা আসনে বিজেপি প্রার্থীদের সমর্থনে আগামী শনিবার সভা করার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। হলদিয়াতে এই সভা করার কথা ছিল। কিন্তু যেভাবে শক্তি পাকিয়ে ধেয়ে আসছে সাইক্লোন তাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। এমনকি সাইক্লোনের প্রভাবে মোদীর চপার আকাশে ওড়া নিয়েও অনিশ্চিয়তা রয়েছে। শুধু তাই নয়, কীভাবে মোদীর র‍্যালিতে লোকজন আসবে তা নিয়েও যথেষ্ট চিন্তা ছিল আয়োজনদের। আর তাই সবদিক বিচার করে হলদিয়াতে মোদীর সভা বাতিল করা হল, এমনটাই জানিয়েছেন জ্য বিজেপি নেতা বিশ্বপ্রিয় চৌধুরী। যদিও পরের দিন অর্থাৎ ৬ মে মোদীর সভা সফল করতে আয়োজকরা উঠে পড়ে লেগেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আজ বুধবার মোদীর সভার প্রস্তুতি উপলক্ষ্যে হলদিয়াতে এক সাংবাদিক সন্মেলন করেন বিশ্বপ্রিয় চৌধুরী। সেখানে তিনি বলেন, মোদীর সভাতে গোলমালের চেষ্টা হলে মোকাবিলা করবে মানুষ। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সভার প্রস্তুতি জোরকদমে শুরু হয়েছে । প্যান্ডেল বাঁধার কাজ শুরুর পাশাপাশি এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখে এস পিজি’র প্রতিনিধি দল। রাজ্য বিজেপির এই নেতা দাবি করেন, “প্রধানমন্ত্রীর সভা নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলছেন । কিন্তু আমরা বলি আপনারাও আসুন । ভোট যাকে খুশি দিন । একবার সভায় এসে ঘুরে যান । এ দিন সভায় যদি কেউ আঘাত হানার চেষ্টা করেন তাহলে নিউটনের তৃতীয় গতিসূত্রের নিয়মে প্রত্যাঘাত হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.