রাজ্য সামলাতে পারেন না, তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বাদ জেগেছে। ভারতবর্ষে মোট লোকসভার আসন ৫৪৩ টি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লোকসভা ভোটে প্রার্থী দিয়েছেন ৪২টি আসনে। তাতেই তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। মমতার মস্তিষ্কের বিকৃতি ঘটেছে, বললেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগণার বাগদার ট্যাংরা এলাকায় বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুরের সমর্থনে ওই সভা থেকে মুকুল মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করেন।

এদিন তিনি বলেন, কিছুদিন আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতায় সার্কাস করল। এসি সার্কাসে এসেছিল বিভিন্ন রাজ্যের, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। তাদের দাবি ভারতবর্ষে দুটি প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। ফারুক আব্দদুল্লা দাবি করে বলছেন, কাশ্মীরের জন্য একটা প্রধানমন্ত্রী চাই, ভারতের জন্য একটা প্রাধান মন্ত্রী চাই। সেখানে ভারতের উন্নয়ন নিয়ে কোনও আলোচনার কথা শোনা যায়নি। মুকুল রায় বলেন, সকাল ১০টায় মানুষের উপস্থিতি দেখে বোঝা যাচ্ছে, বাগদা থেকে ২৫ থেকে ৩০ হাজার ভোটে বিজেপি লিড দেবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কের বিকৃতি ঘটেছে। ওঁর এখন সাধ জেগেছে প্রধানমন্ত্রী হবেন। কিছু দিন আগে কলকাতায় মমতা সার্কাস হল। যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার গণতন্ত্র রক্ষা করতে পারেন না, তিনি বলছেন, ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী হবেন। উনি বলছেন কাশ্মীর সমস্যা সমাধান করবেন। কী করে সমাধান করবেন? আর একটা প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে দেবেন। ভারতবর্ষের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে নরেন্দ্র মোদীর বিকল্প নেই। ওঁদের যদি কখনও শিকে ছেঁড়ে সোমবার প্রধানমন্ত্রী হবেন রাহুল গান্ধী, মঙ্গলবার অখিলেশ যাদব, বুধবার মায়াবতী। বৃহস্পতিবার চন্দ্রবাবু নাইডু, শুক্রবার ফারুক আবদুল্লা, শনিবার স্ট্যালিন। রবিবার কোনও কাজ নেই। তাই ওইদিন প্রধানমন্ত্রী হবেন মমতা ব্যানার্জি।
         

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.