‘স্পিড ব্রেকার’- মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নতুন নাম রেখেছেন নরেন্দ্র মোদী৷ ‘‘বাংলার উন্নয়নের রাস্তায় স্পিড ব্রেকার হলেন দিদি৷’’উত্তরবঙ্গ জলপাইগুড়ির কাওয়াখালিতে জনসভায় এই কথা বলেছেন মোদী৷ যে গতিতে সারা দেশে কাজ করেছেন প্রধানমন্ত্রী, সেই গতিই পশ্চিমবঙ্গে স্তব্ধ৷ কারণ বাংলায় স্পিড ব্রেকার – স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, গত পাঁচ বছরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে যা যা অভিযোগ করেছেন মোদী, সেই সবগুলির মধ্যে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হল – স্পিড ব্রেকার৷ উত্তরবঙ্গের জনতাকে মোদীর প্রশ্ন, ‘‘দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলায় কেন উন্নয়ন হয়না জানেন? জানেন কেন হয়না? কারণ এখানে একজন স্পিড ব্রেকার রয়েছে৷ একানে লোকে তাঁকে দিদি বলে৷’’

মোদীর কথায় দিদি উন্নয়নের স্পিড ব্রেকার হয়ে উঠেছেন৷ কারণ, বাংলায় দারিদ্রতা নিয়ে তাঁর চিন্তা নেই৷ গরীব মানুষকে নিয়ে তিনি রাজনীতি করতে ভালোবাসেন৷ বাংলা থেকে যদি দারিদ্রতা চলে যায়, তবে দিদির রাজনীতি শেষ হয়ে যাবে৷ তবে শুধু দিদি নয় – কংগ্রেস, কমিউনিস্ট সকলেরই একটাই অ্যাজেন্ডা৷ বাংলায় দারিদ্রতা বজায় রাখতে হবে৷ নয়তো তাদের রাজনীতি শেষ হয়ে যাবে৷’’

মোদীর অভিযোগ, আয়ুষ্মান স্বাস্থ্য বীমা প্রকল্প বাতিল করে গরীবদের সর্বনাশ করেছে মমতা৷ পরিবারপ্রতি বছরে পাঁচ লক্ষ টাকার বিমা যোজনা আটকে দিয়েছেন ‘স্পিডব্রেকার দিদি৷’প্রধানমন্ত্রী কিষাণ নিধি আটকে দিয়েছেন মমতা৷ কৃষকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পৌছাবে না৷

মোদীর বক্তব্য, ‘‘পশ্চিমবঙ্গে স্পিডব্রেকার দিদিকে আটকাতে চৌকিদার এসে গিয়েছে৷ বাংলার মানুষ এক ভালোবাসা দেবে ভাবিনি৷ বাংলার ভানুষকে প্রণাম করছি৷ বেশ বুঝতে পারছি দিদির রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে৷’’


Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.