রায়গঞ্জবাসী একজন জোড়ালো প্রতিনিধি হিসেবে আমাকে সংসদে দেখতে চাইছে: দেবশ্রী চৌধুরী

“এবারেও কেন্দ্রে মোদিজীর নেতৃতে মন্ত্রীসভা গঠন হবে, সেখানে রায়গঞ্জ থেকে একজন জোড়ালো প্রতিনিধিত্ব করার জন্য বিজেপি তাকে প্রার্থী করেছে। রায়গঞ্জের মানুষ এতদিন বাদে আমাকে একজন জোড়ালো প্রতিনিধি হিসেবে সংসদে দেখতে চাইছে। আর সেজন্যই আমি যেখানেই প্রচারে যাচ্ছি সাধারণ মানুষের উন্মাদনা বাড়ছে, মানুষ আমাকেই ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে মোদিজীর মন্ত্রীসভায় পাঠাবেন “। মঙ্গলবার রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থীপদের মনোনয়ন দাখিল করার পর আজ কালিয়াগঞ্জ এলাকায় প্রচারে এসে এমনই মন্তব্য করলেন রায়গঞ্জ লোকসভা আসনের বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। তিনি এও বলেন, শুধু রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র নয়, বঞ্চিত গোটা উত্তরবঙ্গের মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন।

মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র দাখিল করার পর আজ কালিয়াগঞ্জ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারে বের হন রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। কালিয়াগঞ্জে বিজেপি প্রার্থীকে ঘিরে দলীয় কর্মী সমর্থক ও সাধারণ মানুষের মধ্যে উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মত। দলীয় কর্মী সমর্থকেরা আজ তাকে প্রথম তাকে কাছে পেয়ে ফুল মালা দিয়ে বরণ করে নেন। এরপর কালিয়াগঞ্জ বয়রা কালীমন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করেন বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে কংগ্রেস আর সিপিএম এতদিন ধরে জয়ী হয়ে এসেছে। কিন্তু এখানকার মানুষের আর্থ সামাজিক কোনও উন্নয়নই তারা করেনি। বছরের পর বছর ধরে বঞ্চিত থেকে গিয়েছেন তারা। মানুষ এতদিন ধরে একজন যোগ্য প্রতিনিধি খুঁজছিলেন। উত্তরবঙ্গের ভূমিকন্যা হিসেবে কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব তাকে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী করেছে। শুধু রায়গঞ্জ লোকসভা নয়, পিছিয়ে পড়া গোটা উত্তরবঙ্গকে সামনে নিয়ে আসাই তার প্রধান উদ্দেশ্য বলে জানান বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। তিনি এও অভিযোগ করে বলেন, আগেও এনডিএ সরকারের আমলে কেন্দ্র থেকে আসা বরাদ্দকৃত অর্থ রাজ্য সরকার উড়িয়ে দিয়েছে। কোনও কাজ করেনি। টাকা ফেরতও চলে গিয়েছে। আজ কালিয়াগঞ্জ শহরের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দলীয় কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে প্রচার করলেন রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.