শুরু হয়ে গেলো তৃণমূলের সন্ত্রাস! ভোটের আগে বাড়িতে ঢুকে গুলি করে খুন করা হল বিজেপি কর্মীকে

ভোট আসতেই রাজ্যে আবার শুরু হল রক্তের বন্যা। ফের তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের হাতে খুন এক বিজেপি কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুরে। বুধবার রাতে উত্তম মণ্ডল নামে এক সক্রিয় বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ঢুকে হুমকি দেয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

উত্তম মণ্ডল কিছু বুঝে ওঠার আগেই উত্তমের ভাই পাতানু মণ্ডল (তিনিও বিজেপি কর্মী) ওনাকে গুলি করে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। রক্তাত্ব অবস্থায় পাতানু মণ্ডলকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকেরা পাতানুকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এই ঘটনার পরেই শোকে ভেঙে পড়ে পাতানুর পরিবার। ঘটনার পর স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে পাতানু মণ্ডলের স্ত্রী। ঘটনার এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার এবং তাঁদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ক্ষোভে ফেটে পড়ে এলাকাবাসী। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব এই ঘটনার জন্য তৃণমূলকে দায়ী করেছে। যদিও শাসকদল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

গত পঞ্চায়েতে এরাজ্যে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাতে প্রাণ হারায় প্রায় ১০০ জন বিরোধী দলের কর্মী সমর্থক। এমনকি তৃণমূলের নেতাদের হাতে আক্রান্ত হয় রাজ্যের শিশু থেকে মহিলারাও। এরপরেও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নিজদের গণতান্ত্রিক দল এবং অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে বলে ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.