সংস্থা ও রাজ্য সরকারের সদিচ্ছার অভাবে চাকরি ঝুলে রয়েছে দুর্গাপুরে ডিপিএলে মৃতের নির্ভরশীল পোষ্যদের। রবিবার ডিপিএলে নির্ভরশীল পোষ্যদের অনশন মঞ্চে দেখা করতে এসে রাজ্য সরকারের সমালোচনায় সরব হলেন আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। পাশাপাশি তিনি বিদ্যুৎমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি দেখা করার পরামর্শ দেন ডিপিএলে আন্দোলনকারী পোষ্যদের।

উল্লেখ্য, গত ৪৭ দিন ধরে চাকরির দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছেন দুর্গাপুরে ডিপিএলে মৃতের নির্ভরশীল পোষ্যরা। তাদের দাবি, ডিপিএলের নিয়ম অনুযায়ী চাকুরিরত অবস্থায় কোন শ্রমিকের মৃত্যু হলে তার পরিবারে একজনের কর্ম সংস্থান হবে। গত ২০১২ সাল থেকে ২০১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত মৃত কর্মচারীর ১২৫ জন পোষ্য এখন চাকুরি থেকে বঞ্চিত। গত চারদিন ধরে বঞ্চিত পরিবারগুলি অনশন শুরু করেছে ডিপিএলের প্রশাসনিক ভবনের গেটের সামনে। রবিবার বিকেলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে অনশন মঞ্চে দেখা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন,” আমার চিঠি দেখার পর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা কি প্রতিক্রিয়া দেবেন জানি না। হতে পারে আরও ছ’ মাস দেরি করবে। তবুও তাদের বলেছি, আমার চিঠি নিয়ে বিদ্যুৎমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি দেখা করতে। নায্য দাবিতে আন্দোলন করছে মৃতের পোষ্যরা। রাজ্য সরকারের সদিচ্ছার অভাবে ন’ বছর ধরে আন্দোলনকারীদের চাকরি ঝুলে রয়েছে বলে মনে করি।” তবে এদিন অবশ্য আন্দোলনরত রাজীব পাল, তানিষ্ঠা চট্টোপাধ্যায় জানান,” বহুবার জানিয়েছি। কিন্তু কর্তৃপক্ষ কোন সদুত্তর দেয়নি। আমাদের সমস্যার সমাধান না হলে ভোটদান থেকে বিরত থাকব। নায্য দাবি না পেলে, পেটে রুজির টান নিয়ে ভোট দেব না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.