নির্দল প্রার্থী তনিমা চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে বোমাবাজি, অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে।

রাত পোহালেই লালবাড়ি দখলের লড়াই। তার আগেই কলকাতায় বোমাবাজি। অভিযোগ ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য। প্রয়াত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন নির্দল প্রার্থী তনিমা চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ।

শুক্রবার রাতে বালিগঞ্জ প্লেসের অভিজাত এলাকায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা পরপর ২টি বোমা ছোড়ে। বাইকে ৩ জন দুষ্কৃতী এসেছিল বলে অভিযোগ। তৃণমূল প্রার্থী সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়ের দাবি, নিজেরাই নিজেদের বাড়িতে বোমা ছুড়েছে।

এবার ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা করা হয় প্রয়াত সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায়ের। তিনি প্রাথমিকভাবে প্রচারও শুরু করেছিলেন। এ পর্যন্ত বিষয়টা ঠিক ছিল। কিন্তু বিদায়ী কোঅর্ডিনেটর সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়কেই লড়াতে চায় তৃণমূল।

এরপরই সবাই চমকে দিয়ে নির্দল প্রার্থী হিসাবে দাঁড়ান তনিমা চট্টোপাধ্যায়। দলের তরফে তাঁকে নির্দল প্রার্থী হিসাবে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের জন্য বলা হয়। কিন্তু তিনি তা করেননি। পরিবর্তে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডেই নির্দল প্রার্থী হিসাবে লড়াই করছেন তনিমা।

শুক্রবার রাতে তাঁরই বাড়ির সামনে বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তাঁর অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকেই। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাঁর পাল্টা দাবি করেছেন, নিজেরাই নিজেদের বাড়িতে বোমা ছুড়েছে।

শুক্রবার পুরসভা নির্বাচনে পুলিশি প্রস্তুতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখেন স্বয়ং পুলিশ কমিশনার। কলকাতার শহরে যতগুলি ডিসি অফিস আছে প্রত্যেকটিতে তিনি নিজে উপস্থিত হন। পুলিশ প্রশাসন কতটা প্রস্তুত এবং নির্বাচন যাতে শান্তিপূর্ণ হয় তা খতিয়ে দেখেন পুলিশ কমিশনার। তারই মধ্যে চলে এই ধরনের ঘটনা।

আজ থেকে শুরু হয়েছে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে রুট মার্চ। যাতে কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, তার জন্য নজরদারি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.