পর্দার পটলডাঙার টনি দা আর নেই। রবিবার রাত ১০টা বেজে ১০ মিনিট নাগাদ শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন অভিনেতা চিন্ময় রায়। মৃত্যু কালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর৷

গত জুন মাসের শেষের দিকে তিনি ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে মারাত্মকভাবে জখম হয়েছিলেন। কিংবদন্তি অভিনেতা চিন্ময় রায়কে গুরুতর আহত অবস্থায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিজের ফ্ল্যাটের তিনতলা থেকে তিনি পড়ে গিয়েছিলেন।

যদিও সেই জটিলতা তিনি কাটিয়ে উঠেছিলেন বলে জানা গিয়েছিল চিন্ময়বাবুর পরিবারের পক্ষ থেকে। যদিও তাঁর শরীর সম্পূর্ণভাবে সুস্থ হয়ে ওঠেনি। একই সঙ্গে তাঁর শরিরে বাসা বেঁধেছিল একাধিক রোগ। সেই অবস্থাতেই ইহলোকের মায়া ত্যাগ করতে হল বাংলা চলচ্চিত্রের এই অভিনেতাকে।

১৯৪০ সালের জানুয়ারি মাসে বর্তমান বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় তিনি জন্মগ্রহণ করেন। বাংলা চলচ্চিত্র জগতের ৭০ এবং ৮০-র দশকের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন চিন্ময় রায়। বহু সিনেমায় তাঁর কমেডি চরিত্রে অভিনয় মানুষের মনে দাগ কেটেছে।

চিন্ময় রায় অভিনীত ন্যতম জনপ্রিয় ছবি হচ্ছে চারমূর্তি। ওই সিনেমায় তিনি টেনিদার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। এছাড়াও বিখ্যাত বাংলা সিনেমা বসন্ত বিলাপেও তিনি অভিনয় করেছিলেন। তপন সিনহা পরিচালিত গল্প হলেও সত্যি ছবিতে তাঁকে দেখা গিয়েছিল। এছাড়াও অস্কার জয়ী পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের ছবিতেও অভিনয় করেছেন চিন্ময়বাবু। গুপি-বাঘা সিরিজের প্রথম ছবিতে গুপ্তচরের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল তাঁকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.