লোকসভা ভোটের আগে বেশ চাঙ্গা গেরুয়া শিবির। লোকসভা ভোট ঘোষণার পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন যায়গা থেকে বিভিন্ন দল ছেড়ে হাজার হাজার নেতা, কর্মী, সমর্থক যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। অমিত শাহ এর ২৩ টি আসনের লক্ষ্য পূরণ করতে বদ্ধপরিকর বাংলার বিজেপি নেতারা। সেই জন্য এবার তাঁরা মাঠে নেমে পড়েছে কোমর বেঁধে।

আরেকদিকে আগামী কাল রাজ্যে সভা করতে আসছেন সকলের প্রিয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রথমে উনি সভা করবেন উত্তরবঙ্গে। উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়িতে উনি আগামী কাল সভা করবেন। প্রথমে সভা করার অনুমতি না পেলেও, পরে সভা করার জন্য অনুমতি পায় বিজেপি।

তাছাড়াও আগামী কাল তিনি কলকাতার ব্রিগেড ময়দানে সভা করতে আসছেন। বিজেপির নেতা মুকুল রায়ের মতে আগামী কাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই সভা ঐতিহাসিক হতে চলেছে। তবে একই দিনে শিলিগুড়ি এবং ব্রিগেডে সভা রেখে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নিয়েছে বিজেপি। এর আগে কোন রাজনৈতিক দলই এত হাই ভোল্টেজ সভা করার দুঃসাহস দেখাতে পারেনি।

ব্রিগেডে সভায় উত্তরবঙ্গ থেকে প্রচুর মানুষ আসে। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর ব্রিগেডে সভা করার আগে, উত্তরবঙ্গে সভা করছেন। তাই অনেকের মতেই উত্তরবঙ্গের মানুষ এতদুর আর নরেন্দ্র মোদীকে দেখতে আসবেন না। কিন্তু বিজেপি নেতা মুকুল রায় জানিয়ে দিয়েছেন যে, আগামী কালের সভায় অন্তত ১০ লক্ষ মানুষ আসবে।

আর এরই মধ্যে কলকাতা থেকে চরম সুখবর বিজেপির জন্য। কলকাতায় রাজ্য বিজেপির সদর দফতরে বিজেপিতে নাম লেখালেন ১২ জন চিকিৎসক। নতুন সদস্যদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক শ্রী রাহুল সিনহা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.