প্রাক্তন ক্রিকেটারদের পেনশন দেওয়া নিয়ে বড় সিদ্ধান্তের পথে সৌরভের BCCI!

এবার থেকে আরও বেশি সংখ্যক প্রাক্তন ক্রিকেটার পেতে পারেন বিসিসিআইয়ের পেনশন। নতুন প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে বোর্ডের অন্দরে। প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা বিসিসিআইয়ে ক্রিকেটারদের প্রতিনিধি অংশুমান গায়কোয়াড় এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, খুব শীঘ্রই বিসিসিআই (BCCI) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এ প্রসঙ্গে একটি প্রস্তাব আনতে পারেন।

এবার থেকে ক্রিকেটারদের অনুপস্থিতিতে তাঁদের পরিবারের সদস্যরাও পেতে পারেন পেনশন। সেই পেনশন দেওয়া হতে পারে ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসসিয়েশনের (Indian Cricketers Association) মাধ্যমে। এত দিন পর্যন্ত যাঁরা ২৫টি বা তার বেশি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন, শুধু তাঁরাই আজীবন পেনশন পেতেন। নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী ন্যূনতম ম্যাচের সংখ্যা কমে ১০ পর্যন্ত নেমে আসতে পারে। সেক্ষেত্রে অনেক বেশি ক্রিকেটার এর আওতায় আসবেন। শুধু ক্রিকেটাররাই নন, তাঁদের অবর্তমানে ক্রিকেটারদের স্বামী বা স্ত্রীরাও পেতে পারেন পেনশন।

অংশুমান গায়কোয়াড় (Anshuman Gaekwad) জানিয়েছেন, “বোর্ডের শেষ বৈঠকে পেনশন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সৌরভ আশ্বস্ত করেছে আগামী বৈঠকে এই প্রস্তাব পেশ করবে। এত দিন ২৫টি ম্যাচ খেলা ক্রিকেটাররা পেনশন পেতেন। সেটা কমে ১০টি ম্যাচ হতে পারে।” তবে, যারা আগে থেকে পেনশন পাচ্ছেন তাঁদের পেনশন বাড়ার কোনও প্রস্তাব নেই। প্রসঙ্গত, বোর্ডের পেনশন নিয়ে সাত বা আটের দশকের ক্রিকেটারদের বিস্তর অভিযোগ আছে। কারণ, যেসময় দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন সেসময় জাতীয় দলের হয়ে খেলে বেশি অর্থ মিলত না।

প্রসঙ্গত, সৌরভরা (Sourav Ganguly) ক্ষমতায় আসার পরই ঘরোয়া ক্রিকেটার আর্থিক স্বচ্ছলতার দিকে নজর দিয়েছে বোর্ড। আসন্ন মরশুম থেকে ঘরোয়া ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেছেন বিসিসিআই সচিব জয় শাহ। শুধু তাই নয়, গত মরশুমে ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ নেওয়া ক্রিকেটারদের ক্ষতিপূরণের কথাও জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.