IPL Playoff calculation- KKR, MI কি পারবে? ৮ দলের মধ্যে প্লে-অফে উঠবে কোন চারটি দল?

জমে উঠেছে ২০২১ আইপিএল। লিগের শেষ ল্যাপের দৌড়ে প্রথম ও দ্বিতীয় কে হবে সেটা জানা গেলেও তিন ও চার নম্বরে কোন দল থাকবে তা এখনও স্পষ্ট নয়। এখনও পর্যন্ত চেন্নাই ও দিল্লি প্লে অফে নিজেদের জায়গা পাকা করে নিয়েছে। প্রত্যেকটি দল এখনও পর্যন্ত নিজেদের ১২ থেকে ১১টি ম্যাচ খেলে ফেলেছে, প্রত্যেকেরই বাকি দুই থেকে তিনটি ম্যাচ। এমন অবস্থায় শনিবারের পরে আরও জমে গিয়েছে লিগ। রবিবারের ম্যাচের দিকে তাকিয়ে বিশ্ব ক্রিকেট।

বর্তমানে প্লে অফে যাওয়ার জন্য তিন নম্বরে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর নিজেদের জায়গা কিছুটা মজবুত করলেও, চার নম্বর জায়গা এখনও ফাঁকা রয়েছে। লিগ টেবিলের চার নম্বর জায়গা দখল করবে কোন দল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। শেষ চারে উঠার জন্য এখন চারটি দল লড়াই চালাচ্ছে। চলুন দেখে নেওয়া এবারের প্লে অফের কোন দল উঠতে পারে। ৮ দলের মধ্যে কে কোথায় অবস্থান করছে।ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

চেন্নাই সুপার কিংস: এই মুহূর্তে মাহির দল প্লে অফে উঠে গিয়েছে। ১২ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ১৮। শেষ দুই ম্যাচে দিল্লি ও পঞ্জাবের বিরুদ্ধে খেলতে নামবে তারা। যদি দুটো ম্যাচেই তারা হেরে যায় তাহলেও শেষ চারের জায়গা তাদের জন্য পাকা রয়েছে।

দিল্লি ক্যাপিটলস: ঋষভ পন্তদের দল এই মুহূর্তে লিগ তালিকার দুই নম্বরে রয়েছে। ১২ ম্যাচের শেষে তাদের পয়েন্ট সংখ্যা ১৮। তাদেরও বাকি রয়েছে লিগের দুটি ম্যাচ। চেন্নাই ও ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে খেলতে নামবে তারা। যদিও এই ম্যাচে হারলে তাদের কেউ প্লে অফ থেকে সরাতে পারবেনা, তবু এই দুটো ম্যাচ জিতে লিগ টেবিলের শীর্যে থাকতে চাইবে দিল্লি। 

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর: বিরাট কোহলির দল ১১ ম্যাচের শেষে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় তিন নম্বরে রয়েছে। বাকি তিন ম্যাচে পঞ্জাব, হায়দরাবদ ও দিল্লির বিরুদ্ধে যে কোনও একটি ম্যাচ জিতলেই প্লে অপের জায়গা পাকা করে নেবে তারা। তবে একটি ম্যাচ না জিতলেও রান রেটের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে আরসিবি কে। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন সেই জটিলতার দিকে যাবেন না বিরাট। রবিবারের পঞ্জাব ম্যাচ জিতেই শেষ চারের জায়গা পাকা করবেন তিনি। কারণ আইপিএল-এ এটাই তাঁর আরসিবির অধিনাযক হিসাবে শেষ মরশুম।

কলকাতা নাইট রাইডার্স: ২০২১ আইপিএল-এর দ্বিতীয় পর্বে দারুণ ভাবে ছন্দে ফিরেছে কলকাতা। তারা ১২ ম্যাচ খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরে রয়েছে। রান রেটে বাকি তিন দল পঞ্জাব,. রাজস্থান ও মুম্বইকে পিছনে ফেলেছে টিম মর্গ্যান। লিগের বাকি দুই ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও রাজস্থান রয়্যালসকে হারালেই শেষ চারের জায়গা পাকা হয়ে যাবে তাদের। আর যদি এরমধ্যে কোনও ম্যাচ তারা হারে তাহলেই অঙ্ক জটিল হয়ে যাবে। চাপে পড়ে যাবে শাহরুখ খানের দল। 

পঞ্জাব কিংস: শেষ ম্যাচে নাইটদের হারিয়ে ছন্দে ফিরেছে কেএল রাহুলরা। এই ভাবে যদি তারা বিরাট ও ধোনির দলের বিরুদ্ধে লিগের শেষ দুই ম্যাচ জিততে পারে তাহলেই চাপে পড়ে যাবে কেকেআর। রান রেট ভালো রেখে জেতার সঙ্গে কলকাতা যদি এক ম্যাচ হারে বা রান রেট খারপ করে তাহলেই প্লে অফের ছাড়পত্র পেয়ে যাবে পঞ্জাব।

রাজস্থান রয়্যালস: লিগে নিজেদের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে রাজস্থানও। সঞ্জু স্যামসনরা শেষ তিন ম্যাচ হারের পরে সিএসকের বিরুদ্ধে বড় রান তাড়া করে যেভাবে জিতেছে তাতে রাজস্থানকে নিয়েও স্বপ্ন দেখা যায়। লিগের শেষ দুই ম্যাচে যদি তারা মুম্বই ও কেকেআরকে হারাতে পারে তাহলেই কেল্লাফতে হয়ে যাবে। শেষ চারের টিকিট জিতে নেবে তারা। কারণ তাদের এই মুহূর্তে ১২ ম্যাচের শেষে পয়েন্ট ১০।  

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স: ২০২১ আইপিএল-এর শুরুটা ভালো করলেও, সংযু্ক্ত আরব আমিরশাহির সফরটা এখনও ভালো যায়নি মুম্বইয়ের। শেষ পাঁচ ম্যাচে জিতেছে মাত্র একটি। তবু এখনও হাল ছাড়তে চায়না দল। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের এখনও প্লে অফে ওঠার আশা শেষ হয়নি। ১২ ম্যাচে তাদেরও পয়েন্ট ১০। লিগের শেষ দুই ম্যাচে রাজস্থান ও হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে খেলতে নামবে তারা। যদি এই দুই ম্যাচে রোহিতরা ভালো ফল করতে পারে এবং বাকি কলকাতা, পঞ্জাব কোনও ভুল করে তাহলেই মুম্বইয়ের সামনে শেষ চারের রাস্তা ক্লিয়ার হয়ে যাবে। 

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: প্লে অপে যাওয়ার কোনও সুযোগ নেই হায়দরাবাদের। ১১ ম্যাচের শেষে তাদের পয়েন্ট ৪। চলতি আইপিএল-এ এখনও পর্যন্ত মাত্র দুটি ম্যাচ তারা জিততে পেরেছ তারা। যদিও তারা প্লে অফে উঠতে পারবে না তবু শেষ তিন ম্যাচে নিজেদের সেরাটা দিয়ে লিগ টেবিলের অঙ্ক বদলে দিতে পারে ঋদ্ভিমান সাহার। কলকাতা, ব্যাঙ্গালোর ও মুম্বই-এর বিরুদ্ধে ম্যাচ অঘটন ঘটিয়ে লিগ টেবিলের অঙ্ককে জটিল করার ক্ষমতা রয়েছে হায়দরাবাদের কাছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.