রায়গঞ্জে আটক লরিভর্তি অভুক্ত বিহারি শ্রমিক

লক ডাউনের মাঝে রায়গঞ্জ শহরের রেল গুমটি এলাকা থেকে লরি বোঝাই বিহারের বাসিন্দাদের আটক করল রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। লক ডাউন চলাকালীন কীভাবে বিহারের দ্বারভাঙ্গা এলাকার বাসিন্দারা লরি করে রায়গঞ্জ শহরে এসে পৌঁছাল তা নিয়ে ধন্দে রয়েছে পুলিশ। ভিনরাজ্যের এই মানুষদের নিয়ে রায়গঞ্জবাসীর মধ্যে ছড়িয়েছে আতঙ্কও। সূত্রের খবর, লরির মধ্যে থাকা ৩৫ জন বিহারের বাসিন্দা কলকাতা থেকে সড়কপথে রায়গঞ্জে এসেছে। রায়গঞ্জ শহরের রেল গুমটি এলাকায় পুলিশের চেকিংয়ের সময় এদের উদ্ধার করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। পুলিশ জানতে পারে, বিহারের এইসব বাসিন্দারা কলকাতা শহরে কেউ দিনমজুরের কাজ করেন, কেউবা আবার ভ্যান রিকশা চালান। দেশজুড়ে লক ডাউন হয়ে যাওয়ায় তারা বিহারের দ্বারভাঙ্গা এলাকায় নিজেদের বাড়িতে পরিবারের কাছে ফিরে যাচ্ছেন তাঁরা। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ পরে তাদের লরি সহ বিহারের উদ্দেশেই রওনা করে দেয়। অন্যদিকে, বৈদ্যবাটি এবং আরামবাগে আটকে পড়া মুর্শিদাবাদের ৬৫ জন নির্মাণকর্মী ঘরে ফিরে যাচ্ছেন। বিধায়ক এবং বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানের অনুরোধে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর। আব্দুল মান্নান জানান, এই রাজমিস্ত্রিরা এখানে কাজ করতে এসে লকডাউনে খুব অসহায় অবস্থার মধ্যে ছিলেন। পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী একটি সরকারি বাসের বন্দোবস্ত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.