সোনিয়া রাহুল স্বরা ওয়েইসির বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক ভাষণের অভিযোগ,কেন্দ্রের কাছে আদালতের রিপোর্ট তলব

শুক্রবার বিধায়ক ওয়ারিস পাঠান ও অন্যদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের দাবিতে আবেদনের শুনানিতে দিল্লি হাইকোর্ট কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী অধ্যক্ষ সোনিয়া গান্ধী, প্রাক্তন অধ্যক্ষ রাহুল গান্ধী, কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বডরা, হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়েইসি, তার ভাই আকবরউদ্দীন ওয়েইসিকে ঘ্রীণা ছড়ানোর দায়ে অভিযুক্ত করেছেন । আদালত কেন্দ্র, দিল্লি সরকার এবং পুলিশের কাছে উত্তর চেয়ে নোটিশ জারি করেছে। কংগ্রেস নেতা সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদ্রের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে এফআইআর রেজিস্ট্রেশন চেয়ে আবেদনের বিষয়ে শুক্রবার দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্র এবং দিল্লি সরকারের কাছে জবাবদিহি তলব করে। প্রধান বিচারপতি ডিএন প্যাটেল এবং বিচারপতি সি হরি শঙ্করের একটি বেঞ্চ আবেদনের বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, দিল্লি সরকার এবং পুলিশকে নোটিশ দিয়েছে ।

এই আবেদনে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া, আপ বিধায়ক আমানাতুল্লাহ খান, এআইএমআইএম নেতা ওয়ারিস পাঠান এবং আকবরউদ্দিন ওয়েইসির বিরুদ্ধেও এফআইআর দায়েরের কথা বলা রয়েছে। এই আবেদনে বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে তদন্তের জন্য একটি বিশেষ তদন্ত দল গঠনেরও আহ্বান জানানো হয়েছে। আদালত অন্য একজন আইনজীবীর আবেদনে কেন্দ্রকে নোটিশ দিয়েছে। এতে একজন আইনজীবী সামাজিক কর্মী হর্ষ মন্দার, আরজে সায়মা, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর, আমানাতুল্লাহ খান (এএপি পার্টি) এর বিরুদ্ধে আইপিসি এবং আইটি আইনের যথাযথ ধারাগুলির অধীনে এফআইআর নথিভুক্ত করতে এবং দিল্লি সহিংসতার জন্য এনআইএ তদন্তের নির্দেশনা জারি করা হয়। বিরোধী সিএএ সমাবেশে অর্থায়ন অন্বেষণের আর্জিও জানানো হয়। দিল্লি হাইকোর্ট একটি আবেদনের শুনানি করে কেন্দ্র এবং দিল্লি সরকারকে নোটিশ জারি করেছে। এই আবেদনে দেশবিরোধী শক্তির তদন্ত ও শনাক্তকরণ এবং সিএএবিরোধী বিক্ষোভের পিছনে তহবিল সম্পর্কিত নির্দেশিকা জারি করার চেষ্টা করা হয়েছে ।

আদালত দিল্লির ডেপুটি সিএম মনীষ সিসোদিয়া, মিডিয়া সার্টিফিকেশন অ্যান্ড মনিটরিং কমিটি (এমসিএমসি) এবং নির্বাচন কমিশনের রিটার্নিং অফিসারকে এ বিষয়ে জবাব দেওয়ার জন্য বলেছে। ১৯ শে মে শুনানির জন্য মামলাটি তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ইউএপিএ-র তদন্তের আবেদনের বিষয়ে আদালত দিল্লি সরকারের কেন্দ্রের কাছ থেকে উত্তর পূর্ব দিল্লিতে সহিংসতার জন্য দায়ীদের সনাক্ত করার জন্য বেআইনী কর্মকাণ্ড (প্রতিরোধ) আইন (ইউএপিএ) এর অধীনে তদন্তের আবেদনের বিষয়ে দিল্লি হাইকোর্ট শুক্রবার কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারের কাছে জবাব চাওয়া হয়। প্রধান বিচারপতি ডিএন প্যাটেল এবং বিচারপতি সি হরি শঙ্করের একটি বেঞ্চ এই আবেদনে দিল্লি সরকার এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে নোটিশ জারি করেছে। আদালত মামলার শুনানির জন্য ৩০ এপ্রিল সময় ধার্য করেছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.