“আমার রাজ্যে অপরাধীদের জন্য দুটো জায়গা, এক জেল নতুবা ওদের জয় শ্রী রাম”: যোগী আদিত্যনাথ।

গুন্ডা অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা নিয়ে চিন্তিত সেক্যুলার, কট্টরপন্থী, তথাকথিত বুদ্ধিজীবীদের কড়া ভাষায় জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী যোগী আদিত্যনাথ আজ আজকাল সকালেই সেক্যুলার ও বামপন্থী উপাদানগুলোকে উত্তর দিয়েছেন, যারা এর গুন্ডা এবং অপরাধীদের মানবাধিকার নিয়ে এতদিন চিন্তিত ছিলেন। যেহেতু ইউপি তে যোগী সরকার গঠন করার পর থেকেই UP তে গুন্ডার সংখ্যা অনেকটা হ্রাস পেয়েছে, সন্ত্রাসী, তোলাবাজি ইত্যাদিও যথেষ্ট পরিমাণে বন্ধ হয়ে গেছে।

যোগী আদিত্যনাথের জন্য গুন্ডারা খুবই বিরক্ত এবং গুন্ডারা বিরক্ত হয়েছে মানে, তাহলে আবার সেক্যুলার ও বামপন্থী উপাদানও বিরক্ত হয়ে উঠে। ফলস্বরূপ মানবাধিকারবাদী, সমাজবাদী, বুদ্ধিজীবী, মিডিয়া সকলে গুন্ডাদের বাঁচানোর জন্য সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করে। তবে যোগী সরকার কোনোরকম চাপ নেওয়ার মুডে নেই। সরকার উত্তরপ্রদেশে রামরাজ্য প্রতিষ্ঠার জন্য গুন্ডারা বিনাশ করার নির্ণয় করে নিয়েছে।

আজ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ লিখিতভাবে গুন্ডাদের জন্য বিরক্তি হওয়া সেকুলারদের উত্তর দিয়েছেন। যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন- “উত্তরপ্রদেশে হয় গুন্ডা জেলের ভিতরে  থাকবেন নতুবা তাদের জয় শ্রী রাম হবে।”

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশ থেকে বড় সংখ্যায় গুন্ডারা অন্য রাজ্যে ভাগাভাগি করেছে বা আন্ডার গ্রাউন্ড হয়েছে, রংধারী ট্যাক্স এর ব্যবসাও যথেষ্ট পরিমাণে কম হয়েছে, এবং যোগী সরকার অপরাধকে পুরোপুরি শেষ করে দেওয়ার উদ্দেশ্যেও কাজ করে চলেছে। কিছু সেক্যুলার উপাদান রয়েছে , যাদের আজ যোগী আদিত্যনাথ কড়া ভাষায় জবাব দিয়েছেন এবং এনকাউন্টার চলতে থাকবে তার স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.