আন্তর্জাতিক স্তরে কাঁচা তেলের দাম কমছে। ব্রেন্ট ক্রুড (Brent Crude) এর দাম ৭৪ ডলার প্রতি ব্যারেলের থেকে কমে ৭০ ডলার প্রতি ব্যারেল হয়েছে। শোনা যাচ্ছে যে, আগামী ১৫ দিনে এই দাম আরও কমতে পারে। আর এর ফলে আমাদের দেশেও পেট্রোল ডিজেলের দাম আগের থেকে অনেক সস্তা হতে চলেছে।

বিশ্বের সবথেকে বড় রিসার্চ ফর্ম ব্যাংক অফ আমেরিকা জানায় যে, সৌদি আরবে কাঁচা তেলের উৎপাদন বাড়ার পুরো সম্ভাবনা রয়েছে। আর এর ফলে কাঁচা তেলের দাম ৭০ ডলারের নীচে চলে আসতে পারে। এই ব্যাপারে এক্সপার্ট জানায় যে, কাঁচা তেলের দাম কমলে ভারতে অর্থব্যাবস্থা উন্নত হবে, আর তাঁর সাথে পেট্রোল ডিজেলের দামও কমবে।

ব্যাংক অফ আমেরিকা জানায় যে, বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি হ্রাসের কারণে অপরিশোধিত তেলের চাহিদা হ্রাস পেতে পারে। আর এর জন্যই তেলের দাম কমতে পারে। আর তাঁর সাথে আমেরিকা আর চীনের মধ্যে চলা ট্রেড ওয়ারের জন্য দাম কমছে। আগামী দিলে কাঁচা তেলের দাম ৭০ টাকা প্রতি ব্যারেলেরও কম হতে পারে।

আইওসি এর ওয়েবসাইটের অনুযায়ী, গত এক মাস ( ১ এপ্রিল থেকে ৬ মে) পর্যন্ত পেট্রোলের দাম ৭২ টাকা প্রতি লিটার থেকে ৭৩ টাকা প্রতি লিটারের মধ্যেই ছিল। তবে এর মাঝে ডিজেলের দাম ৬০ পয়সা বেড়েছিল। এক্সপার্ট অনুযায়ী যদি ক্রুড অয়েলের দাম ৭০ টা প্রতি ব্যারেলের নীচে চলে আসে তাহলে পেট্রোল ডিজেলের দাম ১-২ টাকা পর্যন্ত কমতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.