সীমান্ত না পেরিয়ে বালাকোটের মত এয়ার স্ট্রাইক করতে, আগামী সপ্তাহে ব্রাহ্মস মিসাইল নিয়ে বড়সড় পরীক্ষা করতে চলেছে ভারত

ভারতীয় বায়ুসেনা আর ডিআরডিঅ আগামী সপ্তাহে ব্রাহ্মস সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলকে হাওয়া থেকে লঞ্চ করার পরীক্ষা করতে চলেছে। এই পরীক্ষণের পর ভারত বালাকোটের মত এয়ার স্ট্রাইক দেশে তৈরি করা হাতিয়ারের সাহায্যেই করতে পারবে।পাকিস্তানের বালাকোটের জইশ এ মোহম্মদ এর জঙ্গি ঘাঁটি এয়ার স্ট্রাইকের মাধ্যমে উড়িয়ে দেওয়ার জন্য ভারত ইজরাইলের তৈরি স্পাইস ২০০০ বোমার ব্যাবহার করেছিল। ওই বোমা গুলোকে মিরাজ ২০০০ বিমান থেকে নিক্ষেপ করা হয়েছিল।বায়ুসেনার সূত্র থেকে জানা যায়, ২৯০ কিমি পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম ব্রাহ্মস মিসাইলের (brahmos missile)এ য়ার ভার্সনের উন্নতি প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য বায়ুসেনা চেষ্টা চালাচ্ছে।ওই মিসাইল মাটিতে থাকা টার্গেটকে সহজেই ধ্বংস করতে পারবে। এই মিসাইলের ব্যাবহার শুরু হওয়ার পর বায়ুসেনার বিমানকে আর শত্রু দেশের সীমা পার করতে হবেনা।

ডিআরডিও দ্বারা বিকশিত ব্রাহ্মস মিসাইলের (brahmos missile) এই পরীক্ষণ আগামী সপ্তাহেই সুখোই যুদ্ধ বিমান থেকে করা হবে। ভারতীয় বায়ুসেনার সূত্র জানায়, এয়ারফোর্সের পরিকল্পনা হল ৪০ শুখোই-30MKI বিমানে ব্রাহ্মস মিসাইল ফিট করা। আর এর কারণ হল, জরুরি অবস্থায় অনেক দূর থেকেই এই মিসাইলের ব্যাবহার শত্রুর বিরুদ্ধে যাতে করা যেতে পারে।

ফাইটার প্লেনে এই মিসাইল যাতে সহজেই ব্যাবহার করা যায়, তাঁর জন্য এই মিসাইল গুলোকে হাল্কা বানানো হয়েছে। একবার সফল ভাবে পরীক্ষণ করা হলে, আর এই মিসাইলকে শুখোই বিমানে ফিট করার পর, এর স্ট্রাইক রেঞ্জ আর এই মিসাইলের দ্বারা ঘাতক প্রহারের ক্ষমতা দ্বিগুণ হয়ে যাবে। এর ফলে ভারতীয় বায়ুসেনার শক্তি অনেক গুণ বৃদ্ধি পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.