জঙ্গি হামলা হলে আগে বদলে যেত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এখন বদলায় সরকারের নীতি: মোদী

আগে দেশে বড় জঙ্গি হানা হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বদল হত কিন্তু এখনকার সরকার মন্ত্রী নয় নীতি বদল করে। পুরনো রাস্তায় হাঁটেনি আজকের সরকার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পরিবর্তনের আগে পাকিস্তানের ঘরে ঢুকে মেরে এসেছে ভারতের সেনা। এভাবেই বিরোধীদের বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার দিল্লি মেট্রোর ব্লু-লাইন সম্প্রসারণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

এয়ার স্ট্রাইক এরপর সেখানে কত জঙ্গি মারা গেছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধী শিবিরের নেতৃত্ব। ফলে বিরোধীদের পাল্টা আক্রমণের পথে হেঁটেছেন প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীদের ব্যঙ্গ করে তিনি মানুষে্য উদ্দ্যেশ্যে বলেন এই টুকরো টুকরো গ্যাংদের চিনে রাখুন।

মোদী বলেন সেনা দেশের জন্য কাজ করছে। কিন্তু দেশের নাগরিকদেরওদায়িত্ব রয়েছে। তাদের সতর্ক থাকতে হবে। সতর্ক নাগরিক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হবে দেশের জন্য।

মোদী বলেন ২০১০ পুনেতে একটি বোমা বিস্ফোরণ হয়। একই বছরে বারাণসীতে ও বোমা ফেটেছিল। ২০১১তে মুম্বাই বিস্ফোরণ, দাদারে বোমা ফাটে দিল্লি হাইকোর্টের সামনে বোমা বিস্ফোরণ হয়। সেই সময় এই নাশকতামূলক ঘটনার পরই বদলে যেত দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি মানুষকে প্রশ্ন করেনএই পরিস্থিতিতে মন্ত্রী বদল প্রয়োজন নাকি নীতি বদলের প্রয়োজন।

মোদী বলেন ২০০৮ মুম্বাইয়ের জঙ্গি হামলা হয়। সেই সব দিন ভোলার নয়। কিন্তু পাকিস্তানকে কি আদৌ কোনো জবাব দিয়েছিল ভারত? বায়ু সেনা বলেছিল তাদের অনুমতি দিতে। তাদের হাত-পা বেঁধে বলা হয়েছিল পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে। কিন্তু এখন সেই নীতি পাল্টেছে ভারত। আঘাতের বদলে প্রত্যাঘাতের ভাষায় জবাব দিতে শিখেছে ভারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.