উপযুক্ত সময়ে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হবে জম্মু-কাশ্মীরকে : অমিত শাহ

উপযুক্ত সময়েই রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হবে জম্মু-কাশ্মীরকে। শনিবার লোকসভায় জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন লোকসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “অনেক সাংসদ বলেছেন জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল, ২০২১-এর অর্থ হল জম্মু-কাশ্মীর আর রাজ্যের মর্যাদা পাবে না। এই বিলটি আমি এনেছি, উপযুক্ত সময়ে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হবে জম্মু-কাশ্মীরকে।” জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা প্রদান সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “অনেক সাংসদ বলেছেন জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল, ২০২১-এর অর্থ হল জম্মু-কাশ্মীর আর রাজ্যের মর্যাদা পাবে না। এই বিলটি আমি এনেছি, উপযুক্ত সময়ে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হবে জম্মু-কাশ্মীরকে। আমি উদ্দেশ্য স্পষ্ট করে দিয়েছি, কোথায় লেখা রয়েছে যে, জম্মু-কাশ্মীর আর রাজ্যের মর্যাদা পাবে না? আপনারা কোথা থেকে এমন উপসংহার পাচ্ছেন? আমি লোকসভায় আগেও বলেছি, আজ ফের বলছি, এই বিলের সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা প্রদানের কোনও সম্পর্ক নেই।”
এদিন সকালে লোকসভায় কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেছিলেন, “অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিলের পর যে সমস্ত স্বপ্ন দেখানো হয়েছিল, তা মোটেও পূরণ হয়নি। স্বাভাবিক ছন্দে ফেরেনি জম্মু ও কাশ্মীর। ৯০ হাজার কোটিরও বেশি স্থানীয় ব্যবসা শেষ হয়ে গিয়েছে।” অধীর-সহ কংগ্রেসকে উত্তর দিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “আমার কোনো আপত্তি নেই। আমি সমস্ত কিছু বলব। কিন্তু, জম্মু-কাশ্মীরে যাঁরা ৭০ বছর ধরে শাসন করেছে, তাঁরা এখন জবাব চাইছে। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের সময় আমরা যে সমস্ত প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, সেই প্রতিশ্রুতি নিয়ে কী করেছি তা জানতে চাওয়া হচ্ছে। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর ১৭ মাস হল, আমরা কী করেছি তা জানতে চাইছেন? ৭০ বছর ধরে আপনারা কী করেছেন তা কী জানিয়েছেন? আপনারা যদি ভালোভাবে কাজ করতেন তাহলে আমাদের জিজ্ঞাসা করার প্রয়োজন হত না।
কংগ্রেস সাংসদ মনীশ তিওয়ারি উদ্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “মনীশ ভাই কংগ্রেস সময়কার কথা মনে করুন। হাজার হাজার মানুষ মারা গিয়েছিলেন, কারফিউ লাগু করা হয়েছিল। তথ্যের ভিত্তিতে তুলনা করুন। কাশ্মীরে শান্তি একটি বড় বিষয়। আমি অশান্তির দিনগুলি মনে করতে চাই না, সেই সময়ের পুনরাবৃত্তি আর হবে না, কারণ এখন আমাদের সরকার চলছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, কোভিড-১৯-এর জন্য সমগ্র বিশ্ব মন্দার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। মনীশজি (তিওয়ারি) আপনি পঞ্জাব থেকে এসেছেন, সেখান থেকে পরিসংখ্যান আনুন, সেখানে তো আপনাদের সরকার (কংগ্রেস) রয়েছে….অথবা রাজস্থান ও ছত্তিশগড় থেকে। যতদূর পর্যন্ত মন্দার বিষয়, ওই সমস্ত রাজ্যের তুলনায় ভালো রয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর।
জম্মু ও কাশ্মীরে জেলা উন্নয়ন পর্ষদের নির্বাচন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “কেউ বলতে পারবেন না, এমনকি আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বীরাও বলতে পারবেন না জেলা উন্নয়ন পর্ষদের নির্বাচনের (ডিডিসি) সময় জম্মু-কাশ্মীরে কোনও কারচুপি অথবা অশান্তি হয়েছিল। নির্ভয়ে ও শান্তিতে সকলে ভোট দিয়েছেন। পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৫১ শতাংশ ভোট পড়েছিল। যাঁরা অনুচ্ছেদ ৩৭০ ফিরিয়ে আনার জন্য নির্বাচনে লড়েছিল, তাঁরা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.