সংবিধানের ৩৭০ ও ৩৫এ ধারা নিয়ে চলছে বিতর্ক৷ বিজেপি এই দুটি ধারা বাতিলের পক্ষে৷ অপরদিকে কাশ্মীরের নেতারা হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছেন, এই ধারা বাতিল করা হলে জ্বলবে কাশ্মীর৷ এই নিয়ে কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাকে বিঁধলেন বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব৷ কটাক্ষের সুরে জানান, কাশ্মীর কারোর ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়৷

ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুককে কাশ্মীরের বর্তমান অবস্থার জন্য দায়ী করলেন রাম মাধব৷ তোপ দেগে জানান, কাশ্মীরের আজ যা অবস্থা তার জন্য ফারুক আবদুল্লা দায়ী৷ আক্রমণের রেশ বজায় রেখেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে মনে করিয়ে দেন কাশ্মীর কারোর ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়৷ রাম মাধব বলেন, ‘‘কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল এবং থাকবে৷ কারোর ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়৷’’

আরও একবার তিনি ৩৭০ ধারা নিয়ে বিজেপির অবস্থান স্পষ্ট করে দেন৷ রাম মাধব বলেন, ‘‘এই ইস্যুতে দলের অবস্থান স্পষ্ট৷ এবার যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার সংসদ নেবে৷ কাশ্মীরের উন্নয়ন নিয়ে বিজেপি অনেক নীতি নিয়েছে৷ কাশ্মীরিদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে৷ এই সব সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য রোডম্যাপ তৈরি হচ্ছে৷ সেই নিয়ে কাজ হচ্ছে৷ কাশ্মীরে জঙ্গিদের খতম করেই ছাড়া হবে৷’’

কথা প্রসঙ্গে উঠে আসে কাশ্মীরের বিধানসভা নির্বাচনের বিষয়৷ রাম মাধব জানান, খুব তাড়াতাড়ি উপত্যকায় ভোট হবে৷ আর বিপুল জনাদেশ নিয়ে সরকার গঠিত হবে৷ উল্লেখ্য, পিডিপি ও বিজেপি দুটি দল আলাদা করে সরকার গঠনের দাবি জানালে রাজ্যপাল বিধানসভা ভেঙে দেন৷ ফলে এখন সেখানে নির্বাচন অবশ্যম্ভাবী হয়ে পড়ে৷ শোনা যাচ্ছে লোকসভা ভোট মিটলে কাশ্মীরে বিধানসভা ভোট হবে৷ অন্যদিকে লোকসভা ভোটে কাশ্মীর থেকে এবার বিজেপি ভালো আসনে জয়ী হবে বলে আশা প্রকাশ করেন রাম মাধব৷ বলেন,‘‘ছ’টি লোকসভা আসনের মধ্যে কম করেও তিনটি আসনে জয়ী হবেন বিজেপির প্রার্থীরা৷ ভূস্বর্গের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল হয়ে উঠেছে বিজেপি৷ আমরা কাশ্মীরের শান্তি ও উন্নয়নের জন্য কাজ করব৷’’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.