বিতর্কিত বয়ানের জেরে চরম বিপদে জাভেদ আখতার।

সঙ্গীতজ্ঞ জাভেদ আখতারের সঙ্গে বিতর্কের সম্পর্ক বহু পুরনো। উনি সর্বদাই নিজের বয়ানবাজি নিয়ে ফেঁসে যান। আর এবার আরও একবার উনি বিতর্কিত বয়ান দিয়ে ফেঁসে গেলেন। কিছুদিন আগে জাভেদ আখতার আর.এস.এস-র বিরুদ্ধে মন্তব্য করেছিলেন। আর এরপরই তিনি আইনি প্যাঁচে ফেঁসে যান। আর.এস.এস-র বিরুদ্ধে বয়ানবাজি করার কারণে জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ে হয়েছে। আজই ওনার বিরুদ্ধে এই এফআইআর দায়ের হয়েছে।

মুম্বাইয়ের এক আইনজীবী সন্তোষ দুবে জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে মুলুন্ড থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন। জাভেদ আখতার গত মাসে একটি সাক্ষাৎকারে আর.এস.এস-র বিরুদ্ধে বয়ান দিয়েছিলেন। উনি আর.এস.এসকে তালিবান আর হিন্দু কট্টরপন্থী বলে আখ্যা দিয়েছিলেন। ওই বয়ানের কারণেই আইনজীবী ওনার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন।

আইনজীবী জানান, ‘আমি প্রথমে জাভেদ আখতারকে আইনি নোটিশ পাঠিয়ে ওনার ওই বয়ানের জন্য ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু উনি তা করেন নি। আর এই কারণেই এবার আমি ওনার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করলাম।”

এর আগে আইনজীবী সন্তোষ দুবে দাবি করেছিলেন যে, জাভেদ আখতার শর্ত ছাড়া ক্ষমা চাওয়া আর নোটিশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে মধ্যে জবাব না দেন, তাহলে ওনার বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করা হবে। আইনজীবী দাবি করেছিলেন যে, জাভেদ আখতার এমন বয়ানবাজি করে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৯ আর ৫০০ ধারা অনুযায়ী অপরাধ করেছেন।

আপাতত জাভেদ আখতার এই মামলা নিয়ে নিজের কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। তবে এটাই প্রথম না যে, উনি কোনও বয়ানের কারণে এমন শিরোনামে উঠে এলেন। এর আগেও বহুবার তিনি বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.