বড় খবর: পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরেও নির্বাচন লড়বে বিজেপি, মহা পরিকল্পনা মোদী সরকারের।

লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপি খুবই উৎসাহিত হয়ে আছে এর মধ্যে একটা বড় খবর সামনে আসছে। জানিয়ে দি, বর্তমানে বিজেপি বিশ্বের সবথেকে বড় রাজনৈতিক পার্টিতে পরিণত হয়েছে। BJP অমিত শাহের সভাপতিত্ব ও নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দ্বিতীয়বার ভারতের ক্ষমতায় এসেছে। ২০১৪ সালের পর ২০১৯ এও বিজেপি পূর্ন বহুমত নিয়ে সরকার গঠন করে ফেলেছে। এখন BJP পার্টির মধ্যে উৎসাহ প্রবল আকার ধারণ করেছে। বিজেপি এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীর অর্থাৎ POK তে নির্বাচন লড়ার জন্য পস্তুতি নিচ্ছে।

POK তে নির্বাচন লড়ার জন্য বিজেপি এক বিশেষ প্রকার অভিযান লঞ্চ করতে চলেছে। এমনকি BJP মন বানিয়ে ফেলেছে যে তারা এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষন করবে। POK এর ২৪ টি সংরক্ষিত আসনের মধ্যে ৮ টি আসনে যাতে নির্বাচন করানো হয় সেই বিষয়ে দাবি BJP নির্বাচন কমিশনের কাছে হাজির হবে। জানিয়ে দি, জম্মু কাশ্মীর বিধানসভায় ১১১ টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে ৮৭ টি আসনে নির্বাচন করানো হয়। বাকি পাকিস্তানের অধিকৃত কাশ্মীরের জন্য সংরক্ষিত করা রয়েছে।

লোকসভা নির্বাচনে সময় ৮৭ বিধানসভার মধ্যে ২৮ টি আসনে বিজেপি এগিয়ে ছিল। অনন্তনাগ লোকসভা এলাকায় মানুষজন ভোটের বহিষ্কার করেছিল যার জন্য সেখানে মাত্র ১১১৯ ভোট পড়েছিল। এই ভোটের মধ্যে বিজেপি সবথেকে বেশি ৩২৩ ভোট পেয়েছে। অন্যদিকে ন্যাশনাল কনফারেন্স ২৩৪ টি ভোট পেয়েছিল। POK এর প্রবাসী ভারতীয়দের জন্য M ফর্মের ব্যাবস্থা করার জন্য BJP দাবি জানাতে পারে। M ফ্রম অনুযায়ী কাশ্মীরি পণ্ডিত ভারতের যে কোনো প্রান্তে থেকে ভোট দিতে পায়। এই সুবিধা POK এর মানুষজনদের জন্য উপলদ্ধ করবার উপর চিন্তন করেছে বিজেপি।

এর ফলে POK এলাকার মানুষ ভারতের যে কোনো প্রান্তে থেকে শুধুমাত্র POK বিধানসভা এলাকার তথ্য পূরণ করে ভোটিং এ অংশ নিতে পারবে। M ফ্রম একটা বিস্তৃত ফ্রম যেখানে নিজের নিবাস ও নাগরিকত্ব নিয়ে ডিটেইলস জানাতে হয়। BJP পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের জন্য একটা বড় পরিকল্পনা করছে যা আগামী কিছু সময়ের মধ্যেই জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.