আরো একবার নির্বাচনে জিতে প্রধানমন্ত্রী হলেন বেঞ্জামিন নেতিনয়াহু!ভারতের দৃষ্টিকোন থেকে বড় জয়।

ইজরায়েলে আরো একবার বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন পার্টি জয়লাভ করেছে। উনার ডানপন্থী ‘Likud Party’ ৩৫” টি আসন পেয়েছে। অবশ্য উনার প্রতিদ্বন্দ্বী বেনি গাঁজট পার্টিও ৩৫ টি আসন পেয়েছে। কিন্তু অন্যান্য ডানপন্থী পার্টিগুলি বেঞ্জামিন নেতিনয়াহুর পার্টিকে সমর্থন জানিয়েছে। ফরসরূপ, ৬৯ বছরের বেঞ্জামিন নেতিনয়াহু আরো একবার শক্তিশালী দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। ইজরায়েলের রাজনীতিতে বহুমত পাওয়ার জন্য ৬১ টি আসনের প্রয়োজন হয়। এই নির্বাচনে অন্যান্য ডানপন্থী পার্টিগুলি বেঞ্জামিন নেতিনয়াহুকে সমর্থন জানিয়ে উনাকে জয়লাভ করিয়েছে।

এই জয়ের সাথে সাথে উনি ইজরায়েলের সবথেকে দীর্ঘকালীন স্থায়ী প্রধানমন্ত্রী হবেন। উনার উপর  দুর্নীতির অভিযোগ উঠিয়েছিলেন নেতা নেত্রীরা কিন্তু নির্বাচনের জয় পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছে যে ইজরায়েল দেশের জনতা উনার সাথেই রয়েছে। বেঞ্জামিন নেতিনয়াহু জয়লাভের পর দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এবং সকলকে নিয়ে চলার কথা দিয়েছেন।

জানিয়ে দি, সুরক্ষাকে ইস্যুকে নেতিনয়াহু  নির্বাচনে লড়াই করেছিলেন। বেঞ্জামিন নেতিনয়াহু জিহাদ তথা আতঙ্কবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য এমিতেই খ্যাতি লাভ করেছেন। ফিলিস্তিন সহ বাকি ইসলামিক দেশগুলি ইজরায়েলে বহুবার আতঙ্কবাদ হামলার প্রয়াস করেছে, সেক্ষেত্রে আতঙ্কবাদকে জবাব দিতে বেঞ্জামিন নেতিনয়াহু বড়ো সাফল্য পেয়েছেন।

লক্ষণীয় বিষয় এই যে, বর্তমানে ভারত ও ইজরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক উচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। দুই দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা বাণিজ্য বেড়ে গিয়ে ৯ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে ইজরায়েলে বেঞ্জামিন নেতিনয়াহুর জয়লাভ করা ভারতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল এটা স্বাভাবিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.