করোনা মোকাবিলায় ১.৫ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ আনতে পারে মোদী সরকার

করোনা মোকাবিলায় ভারত খুব সম্ভবত ১.৫ লক্ষ কোটি টাকার স্টিমুলাস প্যাকেজ আনতে পারে। দুটি সূত্র থেকে এমন ইঙ্গিত পেয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

এখনও এই প্যাকেজের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে এই নিয়ে আলোচনা চলছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অফিস , অর্থমন্ত্রক, রিজার্ভ ব্যাংকের মধ্যে। দুটি সূত্র থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে যদিও এই আলোচনা স্তরে তারা তাদের পরিচয় গোপন রাখতে বলেছে।

একটি সূত্র, সরকারি উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, এই স্টিমুলাস প্যাকেজ ২.৩ লক্ষ কোটি টাকার মতো বড় অংক হতে পারে ।কিন্তু চূড়ান্ত অংকটি কত হবে সেটা এখনও আলোচনার স্তরে ।

এই প্যাকেজ খুব সম্ভবত এই সপ্তাহের শেষে ঘোষণা হতে পারে। যার থেকে ১০০ মিলিয়ন দরিদ্রের আকাউন্টে টাকা সরাসরি জমা পড়বে যাদের এই লকডাউনের ফলে এখন চরম সংকটে পড়েছেন বলে সূত্রের খবর।

এদিকে দুই সূত্র মনে করছে, সরকার ঋণ বাড়ানোর পরিকল্পনা করেছে ২০২০-২১ অর্থবর্ষের জন্য । যা ১ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে এবং বর্তমান পরিকল্পনায় ৭.৮ ট্রিলিয়ন টাকা। তাছাড়া সূত্রের খবর সরকার কেন্দ্রীয় ব্যাংকে বলেছে

সরকারি সিকিউরিটিজ কেনার জন্য ইস্যু করতে। যা কয়েক দশক কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইস্যু করেনি মুদ্রাস্ফীতির ভয়। এই প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রক কোন মন্তব্য করতে চায়নি। অন্যদিকে রিজার্ভ ব্যাংকে এই বিষয় ই-মেইল করলেও কোনও জবাব দেয়নি।

মঙ্গলবার রাত আটটায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন। ইতিমধ্যে এদেশের ৫৬২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তাছাড়া মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ জানিয়েছিলেন, সরকার শীঘ্রই করোনা‌ মোকাবিলার জন্য প্যাকেজ ঘোষণা করবে। ওই সময় তিনি কর সংক্রান্ত বেশ কিছু ঘোষণাও করেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.