অসমের রাজধানী গুয়াহাটির (Guwahati) ব্যাস্ত জু রোড এলাকার একটি শপিং মলের বাইরে গ্রেনেড হামলা হয়। ওই হামলায় ছয় জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। ঘটনার খবর পাওয়ার সাথে সাথেই পুলিশ এবং সেনা ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। ওই হামলায় অসমের জঙ্গি সংগঠন আলফার (ULFA) হাত থাকতে পারে। অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল (Sarbananda Sonowal) এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন।

শোনা যাচ্ছে জঙ্গিরা সেনার পেট্রলিং দলকে নিশানা করেছিল। এই ঘটনার পর পুলিশ এখনো পর্যন্ত তিনজনকে তিনসুকিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে। শোনা যাচ্ছে ওই তিনজনের মধ্যে একজন পুলিশ আধিকারিক ভাস্কর কলিতার হত্যার সাথে যুক্ত ছিল। অসমের ডিজিপি কুলধর সৌকিয়া বলেন, এই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে, এখনো পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, জঙ্গিরা সেনাকে নিশানা করে এই হামলা চালিয়েছিল।

পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গুয়াহাটির জু রোডের একটি শপিং মলে যখন মানুষ ঘোরাফেরা করছিল। তখন সেখানে কয়েকজন গিয়ে মলের বাইরে গ্রেনেড হামলা চালায়। এই হামলায় ছয়জন আহত হন, আহতদের মধ্যে ২ জন পুলিশ অফিসারও ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.