সচিনও আউট ছিলেন, DRS ভুল ছিল, এখনও ২০১১-তে আটকে আছেন পাক তারকা সৈয়দ আজমল

কেপ টাউনে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার তৃতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে ডিন এলগারের এক বিতর্কিত রিভিউ নিয়ে ধুন্ধুমার কান্ড। আপত দৃষ্টিতে অশ্বিনের বলে ডিন এলগার স্পষ্ট এলবিডব্লু বয়েছেন বলে মনে হলেও রিভিউতে বল স্টাম্পের ওপর দিয়ে যাচ্ছে বলে দেখা যায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই যত বিতর্ক। আম্পায়ার থেকে টিম ইন্ডিয়া সদস্য, কেউই এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না। এই নিয়ে এবার মুখ খুললেন সৈয়দ আজমল।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বল এলগারের প্যাডের নীচের দিকে লাগায় তাঁকে আউট দেন আম্পায়ার। তবে রিভিউতে দেখা যায় বল উইকেটের ওপর দিয়ে যাচ্ছে। এই ঘটনা সকলকেই বিস্মিত করে। ঘটনা প্রসঙ্গে প্রাক্তন পাকিস্তান বোলার আজমল, ২০১১ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে সচিন তেন্ডুলকরের নেওয়া রিভিউয়ের সঙ্গে এলগারের রিভিউয়ের তুলনা টেনে নিজের ১১ বছর ধরে পুষে রাখা ঝাল মেটানোর চেষ্টা করেন।ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

আজমল বলেন, ‘যখন ২০১১ বিশ্বকাপে সচিন তেন্ডুলকরের আউটটা রিভিউ করায় পরিবর্তিত হয়েছিল, তখন আমায় প্রযুক্তির ওপর ভরসা রাখতে বলা হয়। প্রযুক্তি যে নির্ভুল, সেকথাও জানানো হয়। আজকে ওই লোকেরাই আবার পাল্টি খেয়ে বলছে যে প্রযুক্তিতে ত্রুটি রয়েছে এবং তা ভরসাযোগ্য নয়।’ কেপ টাউনের ময়দানে এলগার যে স্পষ্ট আউট ছিলেন, সে বিষয়ে নিশ্চিত আজমল। 

এই নিয়ে প্রাক্তন পাক তারকার স্পষ্ট মত, যার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটে, একমাত্র সেই বোঝে। ‘আমি ডিন এলগারের রিভিউটা কয়েকবার দেখেছি এবং কোনোভাবেই ওই বলটা উইকেটের ওপর দিয়ে যেতে পারে না। বলটাতো নি-রোলে লাগে এবং ও আউট ছিল। এমন একটা নিশ্চিত আউটের সিদ্ধান্ত বিরুদ্ধে গেলে একমাত্র তখন বোঝা যায় এগুলো মেনে নেওয়া কতটা কঠিন। ঠিক আজকে যেমন অশ্বিনের বলটা উইকেটে লাগত, তেমন করেই কোনোভাবে ২০১১ বিশ্বকাপে সচিনকে করা আমার বলটাও উইকেট মিস করছিল না।’ স্পষ্টবাক প্রাক্তন পাক তারকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.