পাকিস্তান থেকে আগত আট শরনার্থীকে রাজস্থানে প্রদান করা হল নাগরিকত্ব

ওনারা গত শতকের নব্বইয়ের দশকে পাকিস্তান থেকে চলে এসেছিলেন ধর্মীয় অত্যাচারের কারণে । দীর্ঘদিন ভবঘুরের মত জীবন কাটানোর পর ২০০০ সালে অবশেষে রাজস্থানের কোটা শহরে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। তারপর কেটে গেছে প্রায় দুই যুগ। দীর্ঘদিন নাগরিকত্বের জন্য সরকারের দুয়ারে দরবার করলেও মেলেনি তা ।

কিন্তু মোদী সরকার সিটিজেনশিপ অ্যামেণ্ডমেনেট বিল পাশ করানোয় খুলে গেছে সে রাস্তা। ভারতের নাগরিকত্ব পেতে তাদের রইলনা আর কোনো বাধা। মিলেছে রাজস্থান সরকারের ছাড়পত্রও। সোমবার রাজস্থান সরকারের পক্ষ থেকে তাদের স্বরাষ্ট্র দফতর নির্দেশ দিয়েছে কোটা নিবাসী ঐ আটজন ব্যক্তিকে নাগরিকত্ব দিতে। তাদের দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হওয়াতে তারা স্বভাবতই খুব খুশি। ইতিমধ্যেই জেলা আধিকারিক তাদের আবেদন পাঠিয়ে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্র দফতরকে ।

কিছুদিনের মধ্যে সেই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে যাবে বলে আশা। যে আটজন ব্যক্তি নাগরিকত্ব পাবেন তারা হলেন, গুরুদাসমল, বিদ্যা কুমারি, আইলমল, সুশীলা বাই, রুকমণি, নরেশ কুমার, সেবক এবং কৌশল্যা। নাগরিকত্ব পাওয়াই তারা ভীষণ খুশি। সূত্রের খবর স্বরাষ্ট্র দফতরের অন্তিম ছাড়পত্র পাওয়া গেছে পুরো বিষয়টি আইবি তদন্তে করে দেখার পরই ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.