ভোটের আগেই ফের কুলতলিতে অস্ত্র কারখানার হদিশ, উদ্ধার ৫ বন্দুক, কাঁচামাল

ভোটের আগে ফের অস্ত্র কারখানার হদিস পেল বারুইপুর পুলিশ জেলা। জীবনমন্ডলের হাট এলাকা থেকে বরকতউল্লা লস্কর নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে গুলি ভর্তি দুটি বন্দুক উদ্ধার করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কুলতলি থানার কচিয়ামারা গ্রামে অভিযুক্তের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে আরও তিনটি বন্দুক, চারটি বোমা, প্রচুর গুলি, গুলি তৈরির খোল ও গুলি, বোমা তৈরির মশলা উদ্ধার করে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে গোপনসূত্রে খবর পেয়ে খরিদ্দার সেজে বারুইপুর জেলা পুলিশের স্পেশাল অপারেশান গ্রুপের সদস্য ও বকুলতলা থানার পুলিশ জীবন মণ্ডলের হাটের কাছে অপেক্ষা করতে থাকে। সেখানেই গুলি ভর্তি দুটি বন্দুক নিয়ে স্যাম্পেল দেখাতে আসে বরকতউল্লা লস্কর নামে ঐ অভিযুক্ত। অভিযুক্তকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। পরে কুলতলি থানার পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে কচিয়ামারা গ্রামে অভিযুক্তের বাড়িতে গিয়ে আরও বন্দুক, গুলি, বোমা ও গুলি তৈরির মশলা উদ্ধার করে পুলিশ। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এ বিষয়ে আরও কে বা কারা জড়িত সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে বারুইপুর পুলিশ জেলার স্পেশাল অপারেশান গ্রুপ বকুলতলা থানার পুলিশ।

এই অস্ত্র উদ্ধার প্রসঙ্গে বারুইপুর পুলিশ জেলার সুপার রসিদ মুনির খান বলেন, “ শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট করাতে আমারা প্রতিনিয়ত এলাকা থেকে বেআইনি অস্ত্র উদ্ধারে জোর দিয়েছি। বুধবার রাতেও একজন অস্ত্র বিক্রেতাকে গ্রেফতার কড়া হয়েছে। তার কাছ থেকে বিভিন্ন সাইজের মোট পাঁচটি বন্দুক ও প্রচুর গুলি ও গুলি তৈরির খোল উদ্ধার করা হয়েছে। এর সাথে আরও কার কার যোগাযোগ ছিল বা এই অস্ত্র ও কথায় বিক্রি করতো সে বিষয়ে তদন্ত চলছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.