মোদী সরকাররে আক্রমণ করতে গিয়ে ফটোশপড ছবির দ্বারস্থ কংগ্রেস। যা নিয়ে আক্রমণের মুখে পড়েছে কংগ্রেস।

হাইলাইটস

  • কংগ্রেসের ভেরিফায়েড ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি লরির ছবি পোস্ট করা হয়, যার পেছনে হিন্দিতে একটি উক্তি লেখা।
  • হিন্দি সেই লেখার বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ‘দয়া করে হর্ন বাজাবেন না, মোদী সরকার এখন ঘুমোচ্ছে।’
  • ‘মোদী সরকার ঘুমোচ্ছে’ বলে লরির যে ছবি দিয়ে কংগ্রেস ট্যুইট করেছে, সেই ছবি সম্পূর্ণরূপে ডিডিটালি ফটোশপড।

দাবি
কংগ্রেসের ভেরিফায়েড ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি লরির ছবি পোস্ট করা হয়, যার পেছনে হিন্দিতে একটি উক্তি লেখা। হিন্দি সেই লেখার বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ‘দয়া করে হর্ন বাজাবেন না, মোদী সরকার এখন ঘুমোচ্ছে।’ 

ওই ট্যুইটে কংগ্রেসের তরফে লেখা হয়, ‘তুমি জেগে থাকলে, এটা তোমার জন্য। তবে মোদী এটা পড়বেন না।’ 

সত্য
কংগ্রেসের ট্যুইট করা এই ছবিটি প্রযুক্তিগতভাবে ভুয়ো। লরিটির আসল ছবিতে কোথাও লেখা নেই, ‘মোদী সরকার ঘুমোচ্ছে।’ ফটো এডিটিং সফটওয়্যার ব্যবহার করে লেখাটি যুক্ত করা হয়েছে। 

গুগলে রিভার্স ইমেজে গেলেই বোঝা যায়, কংগ্রেস যে ছবি দিয়ে ট্যুইটটি করেছে, তা ভুয়ো। আর তা দেখতে গিয়েই আমরা খুঁজে পাই, ২০১৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি বহিষ্কার হওয়া আইপিএস অফিসার সঞ্জীব ভাট এই ভুয়ো ছবিটি পোস্ট করেছিলেন।

তারও আগে লেখিকা মধু কিসওয়ার একই ছবি দিয়ে ট্যুইট করেন ২০১৮ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি। 

বহু ট্যুইটার ব্যবহারকারীই সঞ্জীব ভাট ও মধু কিসওয়ারকে সতর্ক করে জানিয়েছিলেন, তাঁরা ভুয়ো ছবি পোস্ট করেছেন। সেইসঙ্গে আসল ছবিটিও তাঁরা ওই ট্যুইটে দিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু দুজনের কেউই সেসবের তোয়াক্কা না করে ট্যুইট রেখেই দেন। 

এবিষয়ে কিসওয়ারকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘সরকারের জেগে ওঠা উচিত। কোনও কিছুই ঠিকমতো হচ্ছে না। নিজেদের জাগিয়ে তুলুক ওরা।’ 

কংগ্রেসের পোস্টেও বহু মানুষ আসল ছবি তুলে ধরেন। কিন্তু সেখান থেকেও ডিলিট করা হয়নি সেই ছবি। যদি না এই লেখাটি প্রকাশের সময় তা করা হয়ে থাকে। 

সিদ্ধান্ত
‘মোদী সরকার ঘুমোচ্ছে’ বলে লরির যে ছবি দিয়ে কংগ্রেস ট্যুইট করেছে, সেই ছবি সম্পূর্ণরূপে ডিডিটালি ফটোশপড। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.