পাকিস্থানের ৬ সেনাকে মেরে ফেললো বালোচ সংগ্রামীরা! অজিত দোভাল পাকিস্থানকে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করছে দাবি পাকিস্তানিদের।

বালোচ স্বাধীনতা সংগ্রামীরা পাকিস্থানের ৬ জওয়ানকে শেষ করে দিয়েছে। যা নিয়ে এখন নান রিপোর্ট সামনে আসছে। প্রথমত আপনাদের জানিয়ে দি, বালোচিস্তান পাকিস্থানের অংশ নয়। পাকিস্থান জোর করে বালোচিস্তানকে দখল করে রেখেছে। বালোচিস্তান আগে ভারতের অংশ ছিল। এরপর ইংরেজরা এসে নেহেরু, জিন্নার সাথে মিলে দেশকে ভাগ করে। ভাগের পরেও বালোচিস্তান পাকিস্থানের ভাগে পড়েনি। বালোচিস্তান নতুন দেশ গড়ে উঠার পথ ধরে ছিল। পরে পাকিস্থান নিজের সেনা পাঠিয়ে বালোচিস্তানকে দখল করে। বর্তমানে পাকিস্থানের সেনা বালোচিস্তানের উপর শোষণ করে।

বেলুচিস্তান বিগত কয়েক দশক ধরে স্বাধীনতার জন্য সংঘর্ষ করছে। পাকিস্থানের সেনা বালোচিস্তানের মানুষের উপর অত্যাচার করছে যার প্রতিবাদে এবার বালোচরা পাকিস্থানের সেনার উপর আক্রমণ শুরু করেছে। বালোচদের এই প্রত্যাঘাতে পাকিস্থানের ৬ সৈনিক মারা যাওয়ার খবর সামনে আসছে। পাওয়া খবর অনুযায়ী, বালোচ ফ্রীডম ফাইটাররা জিয়ারত জেলায় পাকিস্থানের ৬ জন সৈনিককে মেরে ফেলেছে।

পাকিস্থানের সাংবাদিক ও বুদ্ধিজীবীদের মত, অজিত ডোভালের জন্য পাকিস্থানে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আসলে সম্প্রতি অজিত ডোভাল বলেছিলেন যে দেশ পুলবামা হামলা ভোলেনি, পাকিস্থানকে আরো শাস্তি দেওয়া হবে। কয়েক সপ্তাহ ধরে পাকিস্থানের সেনা বালোচদের থেকে প্রত্যাখ্যাত পেতে শুরু করেছে। যদিও মারা যাওয়া সৈনিকদের নিজেদের লোক মানতেও অস্বীকার করে পাকিস্থান।  তবে এখন বালোচ-পাক সেনারা সংঘর্ষের তীব্রতা যে হারে বাড়ছে তাতে  চাপে পড়েছে পাকিস্থান।

এখন কিছু পাকিস্থানির দাবি যে অজিত দোভাল পাকিস্থানকে টুকরো টুকরো করর জন্য বালোচদের মদত যোগাচ্ছে। অবশ্য নিজেদের দাবিকে প্রমান দেখাতে অক্ষম। যাইহোক পাকিস্থানের বুদ্ধিজীবী ও সাংবাদিকরা এটা আপাতত স্বীকার করেছে যে পাকিস্থান টুকরো হওয়ার দিকে এগোচ্ছে  যা ভারতের জন্য একটা বড় সুখবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.